টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

‘মরশুমি জ্বর, আতঙ্কের কারণ নেই”, শিশুদের চিকিৎসা চলছে! বললেন মুখ্যমন্ত্রী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রাজ্যজুড়ে বিশেষ করে উত্তরবঙ্গে ভাইরাল জ্বরে আক্রান্ত শয়ে শয়ে শিশু। মালদহ, জলপাইগুড়িতে এই নিয়ে চরম আতঙ্ক ছড়িয়েছে। একদিকে কোভিড, অন্যদিকে শিশুরা জ্বরে আক্রান্ত হওয়ায় ঘুম উড়েছে প্রশাসনেরও। ইতিমধ্যে কয়েকজন শিশু প্রাণও হারিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণ স্বরূপ রাজ্যবাসীকে এই বিষয়ে খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে।

বৃহস্পতিবার এসএসকেএম-এ অধ্যক্ষদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। সেখানে এই জ্বর নিয়েও আলোচনা হয়। এরপর মুখ্যমন্ত্রী ও স্বাস্থ্যসচিব বাইরে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন। সেখানে স্বাস্থ্যসচিব জানান, বিষয়টি নিয়ে পর্যবেক্ষণ চলছে। অজানা জ্বর বলে কোনও খবর নেই। এটামরসুমি জ্বর। অত আতঙ্কের কারণ নেই। কয়েকজন শিশু মারা গিয়েছে, তাঁরা আরএস ভাইরাস ও ইনফ্লুয়েঞ্জা বি ভাইরাসে আক্রান্ত ছিল। এছাড়াও তাঁদের শরীরে অন্যান্য জটিলতা ছিল। মুখ্যমন্ত্রী জানান, জ্বরে আক্রান্ত শিশুদের চিকিৎসা চলছে।

এই বয়ান সামনে আসার পরই কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। শুভেন্দু অধিকারী রাজ্যকে তোপ দেগে বলেছেন, রাজ্য সরকার এখন ভোটে ব্যস্ত তাই এই বিষয়ে তাঁরা নজর দিচ্ছে না। শুভেন্দুবাবু এই ইস্যুতে রাজ্যকে এড়িয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের কাছে সাহায্য চেয়েছেন। তিনি একটি ট্যুইটে লিখেছেন, ‘ভবানীপুরের উপনির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত রয়েছে রাজ্য সরকার। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কাছে আমার আবেদন, বাংলার স্বাস্থ্য পরিস্থিতির দিক খতিয়ে দেখতে প্রতিনিধি দল পাঠান।”

শুভেন্দু অধিকারী পুরুলিয়ার হাসপাতালের সুপারের সঙ্গেও দেখা করেছেন। তিনি পুরুলিয়া জেলায় ২৩৬ জন শিশুর জ্বরে আক্রান্ত হওয়া ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি তিনি হাসপাতালের সুপারকে দরকারে বিজেপির স্থানীয় বিধায়ক এবং সাংসদের থেকেও সাহায্য নেওয়ার কথা জানিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button