টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

‘নেতাগিরি ফলাচ্ছো, লজ্জা হওয়া উচিত তোমাদের’ : নেতাকর্মীদের ধমক মমতার

 

বাংলা হান্ট ডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি জানিয়েছেন, নেতাদের মাত্রা ছাড়া দুর্নীতির জন্য মানুষ তৃণমূল ছেড়ে চলে যাচ্ছে। দলীয় বৈঠকে তা স্পষ্ট করে দিলেন তিনি। শুক্রবার হুগলি জেলা নেতৃত্বের বৈঠকে বেশকিছু নেতাকে খানিকটা বিদ্রুপ করেই মমতা বলেন, ‘নেতাগিরি করছো না কাটমানি খাচ্ছো।’

 

২০১১ সালে মমতার পরিবর্তন সরকার পেছনে হুগলি জেলার সিঙ্গুরই ছিল মূল দ্রষ্টব্য, সিঙ্গুর কে আধার করেই একসময় লড়াই চালিয়েছিলেন মমতা। কিন্তু সেই সিঙ্গুরেই তৃণমূলকে মাত দিয়েছে বিজেপি। এই হার কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যার জেরেই হুগলির কর্মী সভায় ক্ষোভ উগরে দিলেন তিনি। তৃণমূল নেত্রী, কর্মীদের নির্দেশ দিলেন ফিরে পেতেই হবে হারানো জমি। মমতার ক্ষোভের মুখে পড়েন তপন দাশগুপ্ত, অসীমা পাত্র এবং জেলার এক যুব নেতা, তিনি বলেন, ”কে কত বড় নেতা হবে তা নিয়ে বিবাদ করে সিঙ্গুর হেরেছেন। লজ্জা হওয়া উচিত আপনাদের। জমি ফিরিয়ে দেওয়ার পরেও এই হাল কেন?”

শুক্রবারের বৈঠকে তৃণমূল নেত্রী ব্লক স্তরের কর্মীদের অভিযোগও শোনেন। নেত্রীকে হাতের নাগালে পেয়ে একের পর এক কর্মী দুর্নীতি ও স্বজনপোষণের অভিযোগ করেন একাধিক নেতাদের বিরুদ্ধে।

Back to top button
Close