টাইমলাইনভারত

কল্পতরু মমতা! প্রতিটি পুজো কমিটিকে দেওয়া হবে ৫০ হাজার টাকার ‘স্বল্প দান’, বিদ্যুতের বিল অর্ধেক

করোনা আবহে দুর্গা পুজোর (durga puja) রূপরেখা ঠিক করতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (mamata Bandopadhyay) পুজো কমিটির সাথে বৈঠকে বসেছিলেন। এই বৈঠকে করোনার আবহে কিভাবে পুজো হবে তার পাশাপাশি পুজো কমিটিগুলির জন্য বাম্পার উপহার দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

করোনা আবহে রাজ্যের ভাঁড়ার হাল শূন্য। প্রায় প্রতিদিনই রাজ্যের কোনো না কোনো নেতা মন্ত্রী কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতি বঞ্চনার অভিযোগে সরব হচ্ছেন। সরকারে এই দুঃসময়েও মা দূর্গার কৃপায় লটারি লেগে গেল পুজো কমিটি গুলির। আগের বছরের তুলনায় দ্বিগুন করা হল পুজোর অনুদান।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, আমাদের টাকা পয়সা নেই, তবে পুজো কমিটি গুলিও ভীষণ সমস্যায় রয়েছে এই বছর। প্রতিবছরের মতো এই বছরও দেওয়া হবে অনুদান৷ এবার যেহেতু পুজো কমিটিগুলির আর্থিক দুরবস্থা চিন্তা করে সরকার ৫০ হাজার টাকার ‘স্বল্পদান’ দেবে৷ পাশাপাশি তিনি আরো বলেন এটা দান নয় ‘ভালোবাসা’

শুধু অনুদান নয় একই সাথে পুজোর উপহার হিসাবে রাজ্য সরকার ছাড়ও দিচ্ছে পুজো কমিটিগুলিকে। দমকলকে দিতে হবে না কোনো ফি। পুরসভাতেও দিতে হবে না কোনো টাকা। বিদ্যুৎ মাশুল দিতে হবে মাত্র অর্ধেক।

২০১৮ সালে রাজ্য সরকার পুজো কমিটিগুলিকে দিয়েছিল ১০ হাজার টাকা করে৷ উনিশে সেই অনুদান ১৫০ শতাংশ বেড়ে দাঁড়ায় ২৫ হাজারে। এবার করোনাকালে তা এক লাফে হল ৫০ হাজার।

প্রসঙ্গত, করোনার আবহে এবার জমায়েত সহ বেশ কিছু ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার। পাশাপাশি, করোনার কারনে এবার হচ্ছে না দূর্গা পুজোর কার্ণিভালও

 

Back to top button