টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

মমতা ব্যানার্জীর নির্দেশ পেতেই কড়া তৃণমূল কংগ্রেস, শোকজ করা হল তিন নেতাকে

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর (Mamata Banerjee) নির্দেশ পাওয়ার পরই তিন শীর্ষ নেতার ব্যাপারে কড়া পদক্ষেপ নিল বাঁকুড়া (Bankura) জেলা তৃণমূল। শনিবার জেলা তৃণমূল ভবনে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে দলের জেলা সভাপতি শুভাশীষ বটব্যাল রাজ্যের প্রাক্তন আবাসন মন্ত্রী, বিষ্ণুপুরের প্রাক্তন পৌর প্রধান ও বর্তমানে ঐ পৌরসভার ‘প্রশাসক’ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জী, পাত্রসায়র পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি পার্থ প্রতিম সিংহ ওরফে বাবলু ও তালডাংরা ব্লক যুব তৃণমূলের সভাপতি তাপস সুরকে দলের তরফে ‘শোকজ’ করা হয়েছে বলে জানান। একই সঙ্গে আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ঐ শোকজের জবাব দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

জেলা তৃণমূল সভাপতি শুভাশীষ বটব্যাল এই তিন শীর্ষ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, বর্ষীয়ান নেতা শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জীর ছেলের এনজিও মারফৎ করোনা পরিস্থিতিতে ত্রাণ বিলির অভিযোগ এসেছে। পাত্রসায়র পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি পার্থ প্রতিম সিংহ ওরপে বাবলুর বিরুদ্ধে রেশনে দূর্ণীতি ও তালডাংরা ব্লক তৃণমূল যুব সভাপতি তাপস সুরের বিরুদ্ধে চাল বিলি না করার অভিযোগ রয়েছে।

এই তিন দলীয় নেতাকে রাজ্য নেতৃত্বের ওরফে শোকজ করা হয়েছে বলে তিনি জানান। একই সঙ্গে তাদের শোকজ নোটিশের উত্তরের অপেক্ষা করার পাশাপাশি দলীয়ভাবে পুরো বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্তের আগে কাওকে দোষী বা নির্দোষী বলা সম্ভব নয় বলে তিনি জানান। এই নিয়ে সরগরম বাঁকুড়ার রাজনীতি।

একই সঙ্গে ‘কোন কিছু দেওয়া হয়নি’ দাবী করে তিনি বলেন, উনি যদি মনে মনে কল্পনা করে থাকেন আমার কিছু করার নেই’। তারপরেই তার দাবী, করোনা পরিস্থিতিতে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর লড়াইকে সামনে রেখে সমস্ত বিষ্ণুপুরবাসীকে সাহায্য করেছি। দলের জেলা সভাপতি নিজে এই পরিস্থিতিতে কি করেছেন সেবিষয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবী জানান তিনি। ‘শোকজে’র বিষয়টিকে ‘নাটক’ বলে দাবী করেছে বিজেপি।

Back to top button