টাইমলাইনভারত

২১ শে মার্চ মধ্যরাত থেকে ২২ শে মার্চ রাত ১২ টা ট্রেন বাতিল, করোনা রুখতে ততপর কেন্দ্র

জনতা কারফিউ দেখে ভারতীয় রেলপথ একটি বড় ঘোষণা করেছে। ইতিমধ্যে ভারতীয় রেলপথ ২১ শে মার্চ মধ্যরাত (রাত ১২ টা) থেকে ২২ শে মার্চ রাত ১২ টা পর্যন্ত  সমস্ত যাত্রী ট্রেন বাতিল করেছে। আর এই ট্রেন বাতিল করার কারন হল ২২শে মার্চের জনতা কারফিউ।দেশের এই সংকটকালীন পরিস্থিতিতে নরেন্দ্র মোদী বলেন, ‘সম্ভব হলে দেশের প্রবীণ নাগরিকরা ঘর থেকে বেরবেন না।

আমি বারবার অনুরোধ করছি ৬০-৬৫ বছর বয়সী ব্যক্তিরা বাড়ি থেকে বেরবেন না’। কিন্তু সকাল সাতটায় যে ট্রেন চালু হয়েছে সেই ট্রেনের গন্তব্যে পৌঁছাতে সময় লাগবে না। ইতিমধ্যে করোনাতে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। আর সেই পরিমান হয়েছে ২৭৩।য়ার এই পরিস্থিতিতে দেশের নাগরিকদের সুস্থ থাকার জন্য  প্রধানমন্ত্রী মোদী রবিবার (২২ মার্চ) জনতার কারফিউয়ের ডাক দিয়েছেন। আর এইদিন সকাল সাতটা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত প্রয়োজন ছাড়াই বাড়ি থেকে বেরোনোর ​​আবেদন করা হয়েছে।ইতিমধ্যেই ভারতে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে এই রোগের ফলে। যার মধ্যে পঞ্জাবের এক ব্যক্তি রয়েছেন, যিনি কিছুদিন আগেই ইটালি থেকে ফিরেছেন। প্রথম প্রাণ হারান ১২ ই মার্চ ৭৬ বছর বয়সের এক ব্যক্তির হয়। তারপর দিল্লীতে ৬৮ বছর বয়সী এক বৃদ্ধা প্রাণ হারান। মুম্বাইয়ে ১৭ ই মার্চ ৬৪ বছরের বয়সী একজন ব্যক্তি প্রাণ হারান এবং পাঞ্জাবে ৭০ বছরের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। এবং সর্বশেষ মৃত্যু হয় জয়পুরে ঘরতে আসা এক বিদশি পর্যটকের।

আইআরসিটিসি জানিয়েছে, এদিন খাবার প্লাজা, রিফ্রেশমেন্ট রুম, ভরপুর খাবার ও সেল রান্নাঘরও বন্ধ থাকবে। এর আগে ওয়েস্টার্ন রেলওয়ে ঘোষণা করেছিল যে প্রতিদিন ট্রেন পরিস্কার না করার কারনে প্রয়োজনীয় যাবতীয় জিনিস এখানে পাঠানো হবে না। এখানে কম সংখ্যক যাত্রী এবং করোনার ভাইরাসের মহামারী দেখে 20 থেকে 31 মার্চ চলমান 90 টি ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। এর সাথে বাতিল ট্রেনের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪৫। তবে রেলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যাত্রীরা পুরো টাকা ফেরত পাবে।

 

Related Articles

Back to top button