টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

প্রকাশ্য রাস্তায় পোড়ানো হল ১০০ কিলো গাঁজা, কুড়োনোর হুড়োহুড়িতে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ল টাকি রোড

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বেশ কিছুদিন ধরেই উত্তর ২৪ পরগনার (north 24 parganas) দেগঙ্গায় গাঁজার (cannabis) বাড়বাড়ন্ত চোখে পড়ছিল এলাকাবাসীর। সংশ্লিষ্ট থানায় খবর দিয়েও কোনো লাভ হয় নি, অবশেষে প্রকাশ্যে এল গণরোষ৷ এলাকার গাঁজা ব্যাবসায়ীকে ধরে ১০০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে স্থানীয়রা৷ প্রকাশ্য রাস্তাতেই পুড়িয়ে দেওয়া হল তা।

ছবি প্রতীকি

ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গা থানার বেড়াচাঁপায়। গাঁজা বিক্রির কারনে গত কয়েকদিন ধরেই সেখানে বেড়ে চলেছিল মাদকাসক্ত ও সমাজ বিরোধীদের যাতায়াত। বিক্ষোভ দেখিয়ে বা অভিযোগ জানিয়ে কোনো সুরাহা হয়নি বলেই অভিযোগ স্থানীয়দের৷ অবশেষে ২ গাঁজা ব্যাবসায়ীকে হাতে নাতে ধরে ফেলে এলাকার মানুষজন। গাঁজা ভর্তি বস্তা নিয়ে এলাকায় ঢুকছিল তারা। তাদের মধ্যে একজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও আরেকজন পালাতে পারেনি। তার থেকে বস্তা কেড়ে নেয় এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী সেই গাঁজায় আগুন ধরিয়ে দেয় প্রকাশ্য রাস্তাতেই। এরপর হল আরেক কান্ড। কিছু গাঁজা যদি উদ্ধার করা যায় সেই আশাতেই বেশ কিছু লোকজন গাঁজা উদ্ধার করতে চেষ্টা করে। আর তার ফলেই অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে এলাকার প্রধান সড়ক টাকি রোড। বেড়াচাঁপা যেটি বারাসাত হয়ে কলকাতা যাবার প্রধান সড়ক।

দেগঙ্গা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। রতন বিশ্বাস নামের এক অবৈধ মাদক কারবারিকে আটক করেছে পুলিশ।প্রসঙ্গত, গাঁজা সেবন ভারতে আইনসিদ্ধ নয়। তবে বেআইনি হলেও বেশ কিছু এলাকায় এখনো রমরমিয়ে চলে গোপন গাঁজার ব্যাবসা। যার জেরে আসক্ত হয়ে পড়ছে যুব সমাজ

Related Articles

Back to top button