fbpx
টাইমলাইনভারত

৯টি মামলায় অভিযুক্ত বামপন্থি নেত্রী মেধা পাটকরের বাজেয়াপ্ত করা হল পাসপোর্ট

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নর্মদা বাঁচাও আন্দোলন (Narmada Bachao Andolan) চালানো সমাজ কর্মী তথা নারীবিদ মেধা পাটকর (Medha Patkar) এর পাসপোর্ট মুম্বাইয়ের রিজিওনাল পাসপোর্ট অফিস (Mumbai RPO) বাজেয়াপ্ত করে নিয়েছে। ১৮ই অক্টোবর মুম্বাই আরপিও একটি নোটিশ জারি করেছিল, যেখানে বলা হয়েছিল তিনি নিজের বিরুদ্ধে চলা মামলার ব্যাপারে তথ্য দেননি। পাসপোর্ট রিনিউ করানোর সময় নিজের বিরুদ্ধে দায়ের মামলা গুলোকে তিনি লুকিয়ে গেছেন। পাটকরকে ২০১৭ এর মার্চে দশ বছরের জন্য পাসপোর্ট জারি করা হয়েছিল।

পাসপোর্ট আধিকারিক জানান, ‘আমরা মধ্যপ্রদেশ পুলিশের মহানির্দেশকের থেকে আদালতে চলা মামলার বিবরণ চেয়ে পাঠিয়েছি। উনি বলেন, কমপক্ষে পাঁচটি মামলায় অভিযোগ পত্র প্রস্তুত করা হয়েছে।” এই ব্যাপারে মেধা পাটকরের কাছে যখন জবাব চাওয়া হয়, তখন তিনি কয়েকদিনের সময় চান।

পাটকর মিডিয়ার সাথে কথা বলার সময় বলেন, এমন না যে আমি ইচ্ছে করে এই সমস্ত তথ্য লুকিয়েছি। আমার বিরুদ্ধে দায়ের মামলার দুটি আলাদা আলাদা তালিকা আছে। কিন্তু এর মধ্যে বেশিরভাগ মামলা পুরনো। আমি স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে প্রমাণিত কপি গুলো প্রাপ্ত করার জন্য ৪৫ দিনের সময় চেয়েছি। ওনার এই আবেদন এক সপ্তাহ আগে খারিজ করে পাসপোর্ট জমা করার জন্য সাত দিনের সময় দেওয়া হয়েছিল।

মিডিয়া অনুযায়ী, পাটকর বলেছেন গত সপ্তাহে আমাকে একটি চিঠি দ্বারা সূচিত করা হয়েছিল, সেখানে সাত দিনের মধ্যে আমাকে পাসপোর্ট জমা করার কথা বলা হয়েছিল। কম সময় হওয়ার কারণে মামলার সম্পূর্ণ তথ্য পাওয়া সম্ভব হয়নি। এই কারণে আমি তাঁদের কাছে আরও কিছু সময় চেয়েছিলাম। যেটা ওনারা অস্বীকার করে দেয়, আর সেই কারণে আমাকে আমার পাসপোর্ট তাঁদের কাছে পাঠাতে হয়।

পাটকরের বিরুদ্ধে নয়টি মামলা চলছে, এই সমস্ত মামলা গুলো ১৯৯৬ থেকে ২০১৭ এর মধ্যে দায়ের হয়েছিল। পাটকর জানান, মুম্বাইয়ের রিজিওনাল পাসপোর্ট অফিসকে নিজের বিরুদ্ধে দায়ের মামলার ব্যাপারে ১৮ই অক্টোবর ২০১৯ এ লিখিত জবাবে জানিয়েছি। এই মামলা মধ্যপ্রদেশের বরবানি, অলীরাজপুর আর খন্ডবাতে দায়ের হয়েছিল।

উনি বলেন, এর মধ্যে বরবানির দুই আর অলীরাজপুরের এক মামলায় আমি জামিন পেয়েছি, বরবানিতে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ প্রদর্শনের জন্য ২০১৭ এর আগস্ট মাসে এই মামলা দায়ের হয়েছিল, এই মামলা নিয়ে ২০১৭ এর মারচ মাসে পাসপোর্ট কার্যালয়ে তথ্য না দেওয়ার যুক্তি ভুল। এনডিটিভি এর রিপোর্ট অনুযায়ী, উনি বলেন, আগস্ট ২০১৭ তে দায়ের হওয়া মামলার তথ্য মার্চ ২০১৭ তে কি করে দেওয়া সম্ভব?

Back to top button
Close