টাইমলাইনভারতরাজনীতি

ভারত জোড়োতে এবার হাঁটলেন মেহবুবা মুফতি! কাশ্মীরে কি নতুন রাজনৈতিক সমীকরণ? জোরদার জোটের জল্পনাও

বাংলা হান্ট ডেস্ক : গতকাল, অর্থাৎ ৩০ জানুয়ারি শেষ হচ্ছে রাহুল গান্ধীর (Rahul Gandhi) সাড়ে তিন হাজার কিলোমিটারের ভারত জোড়ো যাত্রা। কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে বিজেপি বিরোধী মোট ২২টি রাজনৈতিক দলকে সেখানে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। কিন্তু তারমধ্যে ক’টি দল সমাবেশে যোগ দেবে তা নিশ্চিত করতে পারেনি কংগ্রেস।

তবে জানা যাচ্ছে, ওইদিন ভূস্বর্গের তিন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ন্যাশনাল কনফারেন্সের ফারুখ আবদুল্লাহ (Farooq Abdullah), তাঁর পুত্র ওমর আবদুল্লাহ এবং পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি (Mehebooba Mufti) উপস্থিত থাকবেন। এদিন যাত্রায় যোগ দিয়ে ফারুখ আবদুল্লাহ বুকে টেনে নেন রাহুল ও প্রিয়ঙ্কাকে। পুত্র ওমরের সঙ্গে রাহুলের বন্ধুত্ব দীর্ঘদিনের। বাবার মতো ওমরও বন্ধু রাহুলের যাত্রার প্রশংসা করেছিলেন অনেক আগেই। এদিন অবশ্য কংগ্রেস ও রাহুল গান্ধীর প্রশংসায় ফারুখ এবং ওমরকে কার্যত ছাপিয়ে গিয়েছেন পিডিপি (PDP) নেত্রী মেহবুবা মুফতি। শনিবার তিনিও পা মিলিয়েছেন রাহুলের ভারত জোড়ো যাত্রায়।

rahul priyanka bharat jodo

রাহুলের পদযাত্রা কাশ্মীরে নতুন রাজনৈতিক সমীকরণ তৈরি করছে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল। ২০১৯-এর ৫ অগাস্ট কেন্দ্রীয় সরকার জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা সংবিধানের ৩৭০ নম্বর অনুচ্ছেদ (Article 370) বাতিল করে। রাজ্য দুই ভাগে ভাগ করে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখ গঠন করে। গৃহবন্দি করা হয় প্রাক্তন তিন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক, ওমর এবং মেহবুবাকে। বেশ কয়েক মাস গৃহবন্দি থাকার পর সক্রিয় রাজনীতিতে ফিরে এসেছেন তিনজনই। এদিকে কংগ্রেস সরকারি সিদ্ধান্তের বিরোধিতা না করে বিধানসভায় আলাপ আলোচনার মাধ্যমে পদক্ষেপ করার দাবি জানায়।

কাশ্মীরে বিধানসভা নির্বাচন এ বছরের শেষ অথবা আগামী বছরের গোড়ার দিকে। গুলাম নবি আজাদ (Ghulam Nabi Azad) কংগ্রেস থেকে বেরিয়ে নিজের দল গড়লেও সফল হননি। এই পরিস্থিতিতে কাশ্মীরের প্রধান তিন নেতা রাহুলের ভারত জোড়ো যাত্রায় যোগ দিয়ে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে জোটের জল্পনা উস্কে দিলেন বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker