fbpx
টাইমলাইনভারত

মিশন গগনযান: বায়ুসেনার চার পাইলটকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ চলছে মস্কোয়, তৈরি হবে নতুন রেকর্ড

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ মহাকাশে (In space) পাড়ি দেবে এবার চার পাইলট (pilot), এমনটাই জানানো হয় ইসরোর( ISRO) তরফ থেকে। এই কাজের জন্য বিশ্বের চতুর্থ দেশ হিসাবে এবার ভারতের নাম নথিভুক্ত হতে চলেছে। মস্কের জিসিটিসি( GCTC) সেন্টারে ভারতের চার পাইলটের প্রশিক্ষণ শুরু হয়ে গেছে। এক বছর ধরে চলবে এই প্রশিক্ষণ।

ইসরোর একজন আধিকারিক জানায়, এখন তাঁরা এই চার পাইলটের বিষয়ে কিছুই বলতে চান না। এমনকি তাঁদের নামও গোপন রাখতে চান তাঁরা। এই চার পাইলটকে বায়োমেডিকেল, ফিজিক্যাল প্র্যাকটিস এবং মহাকাশযানের(Spacecraft) আরও অনেক বিষয়ে শিক্ষিত করা হবে। তবে মহাকাশে যাবার একসপ্তাহ আগে থেকে এই পাইলটদের ফিজিক্যাল, রেডিওলজিক্যাল টেস্ট, সাইকোলজি টেস্ট করা হবে। এই বিষয় নিয়ে ইসরোর হিউমেন সেন্টার এবং রুশের স্টেট স্পেস কর্পোরেশন গ্রাউকসমোসএর সঙ্গে ২০১৯ এর ২৭ শে জুন আলোচনা করা হয়।

প্রথম মহাকাশচারী ইউরি গ্যগারিনের নামে মস্কোর জিসিটিসি সেন্টারে বায়ুসেনার এই চার পাইলটকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ চলছে। ২০২২ সালে এই মানবজান মহাকাশে পাঠাবে ইসরো। তবে এই মানবযান পাঠানোর আগে ইসরো ইয়ম মিত্রা নামে এক মানবী রোবটকে পাঠাবে। সেই মানবী রোবটের ভিডিও তাঁরা পেশ করেছে। এই রোবট মানুষের মত ব্যবহার করবে এবং সেখান থেকে ছবিও পাঠাবে। ২০২০ এর ডিসেম্বর এবং ২০২১ এর জুলাইয়ের মধ্যে এই রোবট পাঠানো হবে।

মানব রোবট পাঠানোর পর এই প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত চার পাইলটকে মহাকাশে পাঠানো হবে বলে জানা গিয়েছে। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ইসরোর প্রধান কে শিভান বলেন, এই ২০২২ এর মানব যান ভারত থেকে উৎক্ষেপণ করা গেলে ভারতবর্ষের নাম চতুর্থতম দেশ হিসাবে বিবেচিত হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।

Back to top button
Close
Close