টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিনোদনরাজনীতি

ভোট পরবর্তীতে হিংসার আগুন জ্বলে উঠেছে বাংলায়, দয়া করে এসব বন্ধ করুনঃ মিঠুন চক্রবর্তী

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ভোট পরবর্তীতে বাংলায় ছড়িয়েছে হিংসার আগুন। বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রকাশে আসছে নানা সংঘর্ষের চিত্র। তৃণমূল বিজেপির মধ্যেকার ঝামেলার রেশে খুন, বোমাবাজি, মারধরের অভিযোগ উঠছে গোটা বাংলা থেকেই। এই পরিস্থিতিতে বাংলায় শান্তি ফেরানোর আর্জি জানালেন অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী (Mithun Chakraborty)।

বিজেপিতে নাম লিখিয়েও নির্বাচনে টিকিট নিয়ে লড়াই করেননি। বিজেপির একজন তারকা প্রচারক হিসাবে বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে ছুঁটে গিয়েছেন বিভিন্ন বিজেপি কর্মীর সমর্থনে সভা, রোড শোতে। তাঁকে দেখতে উপছে পড়া ভিড়ও দেখা গিয়েছিল বাংলার সর্বত্রই। কিন্তু তারপরও কাজে দিল না মিঠুন ম্যাজিক। বিধানসভা নির্বাচনে বাংলার মসনদ দখলের স্বপ্ন দেখেও ভরাডুবি হল বিজেপির।

তবে নির্বাচনের ফল প্রকাশ হতেই বাংলার বিভিন্ন প্রান্ত জ্বলে উঠেছে হিংসার আগুন। অভিযোগ উঠছে বাংলার বিভিন্ন এলাকায় বিজেপি কর্মী সমর্থকদের মারধর করে তাঁদের ঘর বাড়িতে ভাঙচুর চালানো হচ্ছে। বিজেপির দাবি, ইতিমধ্যেই মারা গিয়েছেন ৬ জন বিজেপির কর্মী সমর্থক।

বাংলায় এই ভোট পরবর্তী হিংসার আগুন জ্বলে ওঠায় গতকাল কলকাতায় এসেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। কথা বলেছেন নিহত বিজেপি কর্মীদের পরিবারের সঙ্গে, আশ্বাস দিয়েছেন পাশে থাকার। অভিযোগ করেছেন, ‘বাংলার আইন- শৃঙ্খলা ভেঙে গিয়েছে’। এই ঘটনার প্রতিবাদে আজ দেশজুড়ে ধর্নার ডাক দিয়েছে বিজেপি শিবির।

অন্যদিকে বাংলায় এই হিংসা থামানোর আর্জি জানিয়ে ট্যুইট করেন মিঠুন চক্রবর্তী। তিনি লেখেন, ‘নির্বাচনের পরেও বাংলায় হিংসার আগুন থামেনি। রাজনীতি অপেক্ষা মানুষের জীবন বেশি গুরুত্বপূর্ণ, দয়া করে এই হিংসার আগুন থামিয়ে দিন। অন্তত এই সকল মানুষের পরিবারের কথা ভেবে এগুলো বন্ধ করুন’।

Back to top button