টাইমলাইনভারতআন্তর্জাতিক

এক ঢিলে দুই পাখি মারার প্ল্যানিং বানিয়ে ফেলল ভারত, চীন-পাক দুই দেশের উপর চাবুক চালানোর মুডে মোদী সরকার

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ধোঁকাবাজ, চালবাজ, বিশ্বাসঘাতক- ভারতে (india) এই সকল শব্দগুলোর প্রচলন থাকলেও, চীন(china) এবং পাকিস্তানের (pakistan) বিষয়ে কথা বলার জন্য এই সকল শব্দও যেন কম পড়ে যায়। গালওয়ান ঘাটি থেকে প্যাংগং এলাকায় চীন সেনারা ভারতীয় সেনাদের হাতে একদিকে যেমন কুপোকাত হচ্ছে, তেমন অন্যদিকে সীমান্ত এলাকায় পাকিস্তানী সেনারা ভারতের জওয়ানদের হাতে একের পর এক ঘায়েল হচ্ছে।

বর্তমানে ভারত নিজের অভিসন্ধি বদলে ফেলেছে। চীন পাকিস্তান বদলানোর মানসিকতা থাকুন আর নাই থাকুক, ভারত নিজেদের মত করে সেনা সাজাতে তৎপর হয়ে উঠেছে। পূর্ব লাদাখের উত্তেজিত পরিস্থিতি দেখে ভারত একাধারে চীন এবং পাকিস্তানের সঙ্গে যুদ্ধের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে। সেনারাও একসঙ্গে দুই শত্রুদেশের সঙ্গে যুদ্ধ করার জন্য মানসিকভাবেও প্রস্তুতি নিতে শুরু করে দিয়েছে।

বরাবরই ভারতীয় সেনাবাহিনী পাকিস্তানের সীমান্ত এলাকাতে বেশি মজুত থাকত। সেখানেই বেশি পরিমাণে সেনা মজুত রাখত ভারত সরকার। অন্যদিকে লাদাখে ভারতোয় সেনাবাহিনীর থেকে জোর ঝটকা খেয়েও কিছুতেই হার মানতে নারাজ জিনপিং-এর সেনারা। ভারতকে উত্যক্ত করার চেষ্টা ব্যর্থ হলেও, কোনপ্রকার সুযোগ তারা ছাড়ছে না।

ভারতের সঙ্গে এটে উঠতে না পেরে চীন পাকিস্তানের সঙ্গে হাত মিলিয়ে একজোট হয়েছে। পূর্ব লাদাখ সীমান্তে ভারতের সঙ্গে সংঘর্ষের পর পাকিস্তান এবং চীন বায়ুসেনারা যুদ্ধ্যাভ্যাস শুরু করে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ভারতও কোমর বেঁধে লেগে পড়েছে।

সেনামন্ত্রালয় সূত্রের খবর, একযোগে দুই দেশের সঙ্গে যুদ্ধ করতে প্রস্তুত হচ্ছে ভারতের সেনারা। একসঙ্গে ১৩ লক্ষ সেনাকে নতুন রূপে শক্তিশালী করে তুলতে নতুনভাবে প্রশিক্ষণ শুরু হয়ে গিয়েছে। যে কোন পরিস্থিতিতে তারা দেশের সুরক্ষায় ঝাঁপিয়ে পড়তে প্রস্তুত।

Back to top button