fbpx
টাইমলাইনভারত

করোনায় সন্তানের পড়াশোনা বন্ধ, মঙ্গলসূত্র বেচে ক্লাস করার জন্য টিভি কিনল মা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ এই মুহুর্তে হু হু করে বাড়ছে করোনা (corona virus) সংক্রমণ। যার ফলে এই মুহুর্তে বন্ধ স্কুল কলেজ। তবে থমকে নেই দেশের শিক্ষা ব্যাবস্থা। বিকল্প ব্যাবস্থায় মোবাইলে চলছে শিক্ষাদান। কিন্তু সকলের কাছে স্মার্ট ফোন নেই, সাধ্য নেই করোনা পরিস্থিতিতে মোবাইল কেনারও। তাহলে কি থেমে যাবে তাদের শিক্ষা? এই প্রশ্নটাই ফের একবার উঠে গেল নতুন করে।

একজন বিবাহিতা হিন্দু নারীর ক্ষেত্রে মঙ্গলসূত্র বন্ধক রাখা খুবই কঠিন বিষয়৷ তবে সন্তানদের মঙ্গল কামনায় তা করতেও পিছপা হলেন না মা। কর্ণাটকের এক নারী সন্তানের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য বাস্তবের কঠিন মাটিতে দাঁড়িয়ে এই সিদ্ধান্ত নিতেই হল কস্তুরিকে। কারন স্ত্রীত্ব এর নিদর্শন এর চেয়ে এক নারীর কাছে মাতৃত্ব অনেকটাই বড়।

সকল মানুষের কাছে স্মার্ট ফোন নেই বলেই সম্প্রতি করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষাদানের মাধ্যম হিসাবে টিভিকেই বেছে নিয়েছে কর্ণাটক সরকার। কিন্তু যে দেশের একটা বিরাট মানুষ দৈনিক আধপেটা খেয়ে থাকেন, সেই দেশের যে সকলের কাছে টিভি থাকবে না এটাই স্বাভাবিক। আর এমনই এক পরিবারে সন্তানদের নিয়ে বাস করেন কস্তুরি৷

কস্তুরি থাকেন কর্ণাটকের গডগেতে। তিনি জানিয়েছেন, প্রশাসন সিদ্ধান্ত নিয়েছ শিশুদের টিভির মাধ্যমে শিক্ষা দেওয়া হবে। কিন্তু তাদের কাছে টিভি নেই, রোজ রোজ প্রতিবেশীর বাড়িও পাঠানো যায় না ওদের। তাই পড়াশোনা বন্ধ যাতে না হল তাই মঙ্গল সূত্র বন্ধকের সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে তাকে।

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিনে হু হু করে বাড়ছে কর্ণাটকে করোনা সংক্রমণ। হঠাৎ করেই বেড়ে গিয়েছে কম বয়সীদের মৃত্যুর হার। তাই এই মুহুর্তে ঐ রাজ্য জুড়ে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে।

Back to top button
Close