টাইমলাইনভারতআন্তর্জাতিক

খোদ মুসলিম দেশেই পুড়ে ছাই একের পর এক মসজিদ! ৪০% খ্রিস্টান সেখানে, অথচ ভারতে মোদী নাকি সংখ্যালঘু বিদ্বেষী!

বাংলা হান্ট ডেস্ক : অভিযোগে ১৫জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মুসলমানরা স্থানীয় সরকারি কর্মকর্তাদের তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ না নেওয়া এবং এধরনের ঘটনা প্রতিরোধে সামর্থহীনতার সমালোচনা করছেন।

ধর্ম ও রাজনীতি এসব প্রত্যেকটি দেশের। এই ভারতে ধর্ম নিয়ে যখন কোন কথা কোন নেতা বা রাজনীতিবিদ বলে থাকেন তখন তা নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ হয়।আলোচনা-সমালোচনা হয়।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত ধর্মের বীজ হয়তো কেউ পুরোপুরিভাবে পারে না বপন করতে।কারণ ভারত ধর্মনিরপেক্ষ দেশ। কিন্তু যদি এশিয়ার অন্যান্য দেশের কথা ভাবা যায় সেখানে দেখা যাবে মুসলিম অধ্যুষিত দেশ গুলোতে চলছে একের পর এক হানাহানি। তারই প্রমাণ হিসেবে এমন ঘটনার সাক্ষী আবার হয়ে রইল। ইথিওপিয়ার ১১০ মিলিয়ন জনসংখ্যা এক-তৃতীয়াংশ মুসলিম। দেশটির ৪০ শতাংশ মানুষ ওর্থোডক্স খ্রিস্টান।

কিন্তু আমহারা অঞ্চলে মুসলমানদের সংখ্যা খুবই কম। এলাকাটি ওর্থোড্রক্স খ্রিস্টান অধ্যুষিত দ্বিতীয় জনবহুল এলাকা। এখানকার ৮০ শতাংশের বেশি খ্রিস্টান। আল-জাজিরা, এপি, রয়টার্স। খবরের সত্যতা স্বীকার করেছে।

ইথিওপিয়ায় চারটি মসজিদ আগুনে পুড়িয়ে দেয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভে নেমেছে হাজার হাজার মুসলমান। অপরাধীদের দ্রুত বিচারের আহ্বান জানিয়েছে বিক্ষোভকারীরা।আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত শুক্রবার রাজধানী আদ্দিস আবাবা থেকে ৩৫০ কিলোমিটারের বেশি দ‚রে অবস্থিত মোট্টা শহরে মসজিদে আগুন ধরিয়ে দেয় একদল সন্ত্রাসী। এছাড়া মুসলিমদের সম্পত্তিতেও হামলা চালায় তারা।

Related Articles

Back to top button