টাইমলাইনটাকা পয়সাভারত

বড় ঝটকাঃ এশিয়ার সবথেকে ধনী ব্যক্তির তকমা হারালেন মুকেশ আম্বানি! প্রথম কে?

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বর্তমান সময়ে ভারতের অন্যতম দুই বিজনেস টাইকুন হলেন গৌতম আদানি এবং মুকেশ আম্বানি। এমতাবস্থায়, প্রায়শই মোট সম্পত্তির বিচারে এই দুই ধনকুবের একে অপরকে কড়া টক্কর দেন। এমনকি, সেই প্রতিযোগিতার দিকে নজর রাখেন অনেকেই। তবে, এবার রিলায়েন্স কর্ণধার মুকেশ আম্বানির কাছ থেকে ফের একবার সেরার শিরোপা ছিনিয়ে নিলেন গৌতম আদানি। পাশাপাশি, বর্তমানে মোট সম্পত্তির পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে তিনিই এখন এশিয়ার শ্রেষ্ঠ ধনকুবের হিসেবে বিবেচিত হয়েছেন।

জানা গিয়েছে যে, গত বৃহস্পতিবার বিকেলেই, বিশ্বের শীর্ষ দশ বিলিয়নেয়ারদের তালিকায়, মুকেশ আম্বানি গৌতম আদানিকে টপকে এশিয়ার শ্রেষ্ঠ ধনকুবেরের তকমা পেয়েছিলেন। কিন্তু, ঠিক তার কয়েক ঘন্টা পরেই, আদানি আবার সেই স্থান ফিরে পেয়েছেন।

ফোর্বসের রিয়েল টাইম বিলিয়নেয়ার তালিকা অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, গত বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত মুকেশ আম্বানির সম্পদ বেড়ে দাঁড়ায় ৩.১ বিলিয়ন ডলারে। অপরদিকে, গৌতম আদানির সম্পদ কমে যায় ১.৩ বিলিয়ন ডলার। ঠিক এরপরেই আদানি গ্রুপের শেয়ার উর্ধ্বমুখী হওয়ার কারণে আদানির সম্পদও বাড়তে থাকে। বাজার বন্ধের সময়ে দেখা যায় যে, মুকেশ আম্বানির সম্পদের পরিমান বেড়ে যায় ৩.৪ বিলিয়ন ডলার। অপরদিকে, গৌতম আদানিরও সম্পদ বৃদ্ধি পায় ২.৭ বিলিয়ন ডলার।

এদিকে, শুক্রবার সকাল পর্যন্ত, ফোর্বস রিয়েল টাইম বিলিয়নেয়ার্স ইনডেক্সের সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুসারে জানা গিয়েছে, আদানির মোট সম্পদ এখন ১০২.৫ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছে গিয়েছে এবং তিনি বিশ্বের ধনকুবেরদের তালিকাতেও আবার ছয় নম্বরে উঠে এসেছেন। অপরদিকে, মুকেশ আম্বানির বর্তমান সম্পদের পরিমান হল ১০১.৬ বিলিয়ন ডলার। আপাতত তিনি ধনকুবেরদের তালিকায় সপ্তম স্থানে রয়েছেন।

adani ambani

পাশাপাশি, ইলন মাস্ক ২৩৩.৭ বিলিয়ন ডলারের সম্পদের অধিকারী হয়ে ওই তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করেছেন। এছাড়াও, বার্নার্ড আর্নল্ট ১৫৭.০ বিলিয়ন ডলারের সম্পদ নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন। তৃতীয় স্থানে আছেন জেফ বেজোস, যাঁর মোট সম্পদের পরিমান হল ১৫১.২ বিলিয়ন ডলার। অপরদিকে, ১২১.৯ বিলিয়ন ডলারের মালিক হয়ে চতুর্থ স্থানে রয়েছেন বিল গেটস।

Related Articles

Back to top button