fbpx
টাইমলাইনভারত

করোনা ভাইরাসের চিকিৎসার জন্য সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ালেন মুকেশ আম্বানি

ইতালিতে যেন কোরোনার প্রকোপে মৃত্যু মিছিল বেড়েই চলেছে। আর তার ভয়ে শিউরে উঠছে দেশের সকল নাগরিক। প্রত্যেক দেশের মানুষ যেন এখন মৃত্যু থেকে ভয়ে নিজেকে বাঁচাতে তৎপর হয়ে উঠছে। আর এই পরিস্থিতিতে এবার দেশের মানুষের পাশে দাঁড়ালেন মুকেশ আম্বানি।

করোনার প্রকোপ থেকে বাঁচার জন্য প্রধানমন্ত্রী এদিন তিনি জানান যে এভাবেই যদি আমরা নিয়ম মেনে চলতে পারি আর সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে পারি তাহলে এই ভাইরাস কম ছড়াবে। আর এইদিন তিনি বলেন যারা এই চরম পরিস্থিতিতেও আমাদের কথা ভেবে নিজেদের কথা না ভেবে কাজ করছেন তাদের জন্য তাদের প্রতি আমার বিশেষ শ্রদ্ধা । দেশের গবেষকরা করোনার ভাইরাসের বিরুদ্ধে এতদিন ধরে একটা কঠিন লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে।

দেশটি জরুরি পরিষেবাগুলিতে নিযুক্ত চিকিত্সক, নার্স এবং কর্মীদের ধন্যবাদ জানায়, যারা করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তাদের জীবন নিয়েও চিন্তা করে না। আর এসব থেকে বাদ যায়নি মুকেশ আম্বানিও। রিলায়েন্স করোনার ভাইরাস দেখে লোকদের সাহায্য করার জন্য পদক্ষেপ নিয়েছে। রিলায়েন্স জানিয়েছে যে সঙ্কটের এই মুহূর্তে সরকারকে সহায়তা করতে প্রস্তুত। রিলায়েন্স করোনার ভাইরাস রোগীদের জন্য মাত্র দু’সপ্তাহে একটি হাসপাতাল স্থাপন করেছে। এটি কেবল করোনার ভাইরাসযুক্ত রোগীদের জন্য হবে।এর আগে কখনোই এরকম হাসপাতাল দেখা যায়নি যদিও। এইচএন রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন হাসপাতাল করোনার ভাইরাসে সংক্রামিত লোকদের চিকিত্সা করার এবং কোয়ারেন্টাইন সুবিধা দেওয়ারও ঘোষণা করেছে।

চাহিদা মেটাতে সংস্থাটি প্রতিদিন ১ লাখ ফেস মাস্ক তৈরি শুরু করেছে। এ ছাড়া মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে পাঁচ কোটি অনুদান দেওয়া হয়েছে।মহারাষ্ট্রে লোধিয়ালিতে একটা বিচ্ছিন্ন জায়গা বেছে নেওয়া হয়েছে. জিও ‘করোনা হেরেগা, ভারত জেটিগা’ উদ্যোগ শুরু করেছে।বিদেশ থেকে চিকিৎসার জন্য এক লক্ষ্য কিট আনবে রিলায়েন্স। ঘরে বসে যাতে সবাই কাজ করতে পারে সেজন্য তিনি নেট এ পরিষেবা দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছেন। আর আজ দেশের মানুষের বিপদে তিনি আবার একধাপ এগিয়ে এলেন।

Back to top button
Close
Close