টাইমলাইনবিনোদন

মহিলারা পুরুষের সমকক্ষ হতে চাইলে, কাজ করতে চাইলেই #MeToo হয়, বিষ্ফোরক মুকেশ খান্না!

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই সোশ‍্যাল মিডিয়ায় একের পর এক বোমা ফাটিয়ে চলেছেন মুকেশ খান্না (mukesh khanna)। বিভিন্ন বিষয়ে নিয়ে তাঁর মতামত বহুবার বিতর্কের (controversy) সৃষ্টি করেছে। কিন্তু তাতে দমানো যায়নি অভিনেতাকে। সম্প্রতি ফের এক বিষ্ফোরক মন্তব‍্য করেছেন মুকেশ খান্না।

একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ‍্যাল মিডিয়ায়। সেখানে এক সাক্ষাৎকারে মুকেশ খান্নাকে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘পুরুষ আলাদা হয়, মহিলা আলাদা হয়। মহিলাদের কাজ ঘর সামলানো, ঘরের কাজ করা। এই #MeToo তখন শুরু হয়েছিল যখন মহিলারাও কাজ করা শুরু করেন। পুরুষের সঙ্গে সমকক্ষ হয়ে তারা চলতে চায়। কিন্তু সেটা সম্ভব নয়। এতে সবথেকে বেশি সমস‍্যায় পড়ে বাড়ির শিশুরা যারা মায়ের যত্ন পায় না।’

অভিনেতার এই ভিডিও ভাইরাল হতেই সমালোচনার ঝড় উঠেছে নেটদুনিয়ায়। এমন মন্তব‍্য ও মনোভাবের জন‍্য অভিনেতাকে কড়া ভাষায় সমালোচনা করছে নেটজনতা। একজন লিখেছেন, পুরোনো দিনের ধ‍্যান ধারনা পুষে রাখলে এমনটাই হবে।

আবার আরেকজন লিখেছেন, ওনার মতে মহিলারা কাজের জন‍্য বাইরে বেরোলে পুরুষরা তাদের উপর যৌন নির্যাতন চালাতে পারে। উনি অসুস্থ। লজ্জা হওয়া উচিত। আবার আরেকজন কটাক্ষ করে লিখেছেন, উনি সম্ভবত কোনো উপযুক্ত মহিলাও পাননি।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি অক্ষয় কুমারের আগামী ছবি লক্ষ্মী বম্ব এর টাইটেলের বিরুদ্ধে সরব হন মুকেশ খান্না। কিছুদিন অগে ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘লক্ষ্মী বম্ব টাইটেল দিয়ে কোনো ছবি মুক্তি পাওয়া কি উচিত? এই নিয়ে গোটা দেশে বিবাদ চলছে। কিছু মানুষ এই ছবিটি বয়কট করার ডাক দিয়েছেন। আমার মনে হয় ছবিটি বয়কট করা উচিত নয়। কারণ সবে মাত্র ছবির ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে। কেউ এখনো ছবি দেখেনি।’

এরপর তিনি আরো বিতর্কিত মন্তব‍্য করে বসেন। অভিনেতা লেখেন, ‘লক্ষ্মীর পরে বম্ব কথাটা বসানো খুব কৌতুকপূর্ণ মনে হয়। বাণিজ‍্যিক সুবিধার জন‍্য এমন টাইটেল দেওয়া হয়েছে বলে মনে হয়। এটার অনুমতি কি দেওয়া উচিত? অবশ‍্যই নয়। আল্লাহ বম্ব বা বদমাশ জেসাস ছবির নাম কি হতে পারে? নিশ্চয়ই নয়। তাহলে লক্ষ্মী বম্ব কিকরে?’

Back to top button