আন্তর্জাতিকটাইমলাইন

ফ্রান্সের মানুষদের হত্যা করার অধিকার আছে মুসলিমদের, বললেন মালেশিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী

Bangla Hunt Desk: ফ্রান্সের (France) ঘটনায় গোটা বিশ্ব যেন দুভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছে। ফ্রান্সের এক শিক্ষক নবী হজরত মোহাম্মদের ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করায়, তাঁর শিরচ্ছেদ করা হয়। এই ঘটনার পর থেকেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ফ্রান্স। ফ্রান্স সরকার এই ঘটনায় মাথা নত না করায় তাকেও নানান সমালোচনার সম্মুখীন হতে হয়।

ফ্রান্সের এই ঘটনা প্রসঙ্গে এবার মুখ খুললেন মালয়েশিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মহম্মদ (Mahathir Mohamad)। মুসলিম সম্প্রদায়কে সমর্থন করে তিনি বললেন, ফ্রান্সের মানুষদের খুন করার অধিকার রয়েছে মুসলিমদের। সেইসঙ্গে তুলোধনা করলেন ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি এমানুয়েল ম্যাক্রনকেও।

মালেশিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর কটাক্ষ
মুসলিমদের সমর্থন করে মালয়েশিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মহম্মদ বৃহস্পতিবার এক ট্যুইট করে লেখেন, ‘চোখের বদলে চোখ’  এই নীতিতে মুসলিমরা বিশ্বাসী নয়। সেই কারণে ফ্রান্সের মানুষদের উপর এখনও কোন প্রতিশোধ নেয়নি। ফ্রান্সে (France) বসবাসকারী অন্য সম্প্রদায়ের মানুষদের উচিত, ভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষদের অনুভূতিকে অসম্মান না করা। অন্য সপম্প্রদারের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে অমর্যাদা করা একদমই অনুচিত। অপরকে সম্মান জানানোর মাধ্যমেই একজন মানুষ কতটা সভ্য, তার প্রকাশ পাওয়া যায়।

মাহাথির মহম্মদের বিস্ফোরক মন্তব্য
ফ্রান্সের (France) রাষ্ট্রপতি এমানুয়েল ম্যাক্রনের সমালচনা করে লেখেন, ‘ম্যাক্রোঁর আচরণে তাঁকে সভ্য মানুষ বলে মনে হচ্ছে না। একজন স্কুল শিক্ষকের খুনের পরিপ্রেক্ষিতে ইসলাম ধর্ম ও মুসলিমদের যেভাবে তিনি দায়ী করছেন, তাতে করে তাঁর পক্ষপাতদুষ্ট মনোভাবেরই প্রকাশ পাওয়া যাচ্ছে। উনি হয়ত ভুলে গেছেন, উপনিবেশ তৈরির সময় ফ্রান্সের বাসিন্দারা লক্ষ লক্ষ মানুষকে হত্যা করেছিল, যার মধ্যে সিংহ ভাগ ছিল মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত। তাই বর্তমান সময়ে ফ্রান্সের মানুষদের উপর রাগ প্রদর্শন এবং তাদের হত্যা করার সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে মুসলিম সম্প্রদায়ের’।

ফ্রান্সে সন্ত্রাসী হামলায় মৃত ৩
এদিকে আবার ফ্রান্সের নিস শহরে এক গির্জার মধ্যে ঢুকে এক মহিলার মুণ্ডচ্ছেদ এবং আরও দুজনকে হত্যা করে সন্ত্রাসবাদীরা। এই সন্ত্রাসবাদী ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ফ্রান্সের নিস শহরের মেয়র ক্রিস্টিয়ান এস্ত্রোসি এক টুইট করে জানান, এই নৃশংস ঘটনাটি নিস শহরের নতর দাম গির্জার কাছে অথবা ভিতরেই ঘটেছে। অভিযুক্ত আততায়ী বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে। যে ৩ জনেরব উপর আক্রমণ হয়েছিল, তাদের মৃত্যু হয়েছে এবং ঘটনাস্থলে অনেকেই আহতও হয়েছেন।

Back to top button