টাইমলাইনভারত

কলেজে পড়তে হবে লম্বা কুর্তি, নয়া ফরম্যান হায়দরাবাদের কলেজে

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক:  লম্বা কুর্তি পড়লে ভালো বিয়ের সম্বন্ধ আসে, তাই এবার থেকে কলেজে মেয়েদের পোশাকের বিধি নিষেধ জারি করল হায়দরাবাদের সেন্ট ফ্রান্সিস কলেজ ফর ওমেন কর্তৃপক্ষ। এবার আর জিন্স, বা স্কার্ট কিংবা ছটো কুর্তি পড়া যাবে না। বদলে পড়তে হবে লং কুর্তি। শুধু তাই নয় মেপে দেওয়া হল কুর্তির সাইজও। পড়তে হবে হাঁটুর নীচ অবধি লম্বা কুর্তি। চলতি বছরের 1 আগষ্ট থেকে ওই কলেজে এই নিয়ম লাগু হয়েছে। তাই কলেজ কর্তৃপক্ষের নিয়ম অমান্য করে যাঁরা নিজেদের ইচ্ছে মতো পোশাক পড়ে আসছেন তাঁদের করতে দেওয়া হচ্ছে না ক্লাস। এমনকি কলেজ চত্বরেও প্রবেশ নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কলেজ কর্তৃপক্ষের এই ফরম্যানের বিরোধিতা করে সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট থেকেই প্রতিবাদ শুরু হয়েছে।

জানোবিয়া টুম্বি নামে এক ছাত্রী লিখেছেন, ‘‌যেখানে গোটা দেশে মানুষ নারী স্বাধীনতার কথা বলছে, সেখানে কলেজ কর্তৃপক্ষের এই বিধিনিষেধ নারী স্বাধীনতাকে খাটো করছে। একটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্তৃপক্ষের এই আচরণ একেবারেই কাম্য নয়। যদি কোনও ছাত্রী ছোট কুর্তি পরে আসে, তাঁকেই ধরে ধরে অপমান করা হচ্ছে। এই বিধিনিষেধ ঠিকভাবে মেনে চলা হচ্ছে কিনা তা দেখার জন্য একজন মহিলা রক্ষী রাখা হয়েছে। কর্তৃপক্ষের নির্দেশ না মানলে রীতিমতো হেনস্থা করা হচ্ছে ছাত্রীদের।’

কলেজের পড়ুয়াদারে একটা স্বাধীনতা থাকেই। কিন্তু পোশাকের ক্ষেত্রে এখনও অবধি কোনো কলেজেই বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়নি। তাই সমাজে যখন নারী উন্নয়ন করতে যখন চেষ্টা চালানো হচ্ছে তখন এই নিয়ম নেহাতই পুরান মানসিকতার পরিচয়, বলেই মনে করছেন অনেকে। তবে এই পোশাক  ফরম্যান মেনে নিতে না রাজ পড়ুয়ারা। তাই সোমবার কলেজে প্রতিবাদের ডাক দিয়েছেন পড়ুয়ারা।

Leave a Reply

Close
Close