টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারতরাজনীতি

কেন্দ্রের প্রতিনিধি দলের কাছে ইয়াসের ক্ষতিপূরণ বাবদ ২১ হাজার কোটি টাকা চাইল নবান্ন

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বাংলায় (west bengal) সরাসরি ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের (cyclone yaas) প্রভাব না পড়লেও, হালকা ঝটকাতেই কুপোকাত বাংলার বিস্তীর্ণ এলাকা। নদী বাঁধ ভেঙে বন্যা বিধস্ত হয়ে পড়েছে একাধিক গ্রাম। পূর্বেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হাতে মুখ্যমন্ত্রী ইয়াসের ক্ষয়ক্ষতির নিরিখে ২০ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজ ধরিয়ে দিলেও, কিছুদিন আগেই বাংলায় আসে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল।

গত কয়েকদিন ধরে গোটা রাজ্য জুড়ে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস-এ ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ক্ষতিয়ে দেখে এই কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। এরপর গত বুধবার নবান্নে ইয়াস ক্ষয়ক্ষতির আলোচনা সংক্রান্ত একটি বৈঠক বসে। সেখানে মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীর সঙ্গে বৈঠক করে এই কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল।

বৈঠকে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলকে জানানো হয়, রাজ্যে ইয়াস পরবর্তীতে ২১ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের হাতে এই রিপোর্ট তুলে দেন মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। তবে জানা গিয়েছে, রাজ্যের পক্ষ থেকে দাবী করা এই ক্ষতিপূরণের পরিমাণের সঙ্গে সহমত পোষণ করেছে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই কেন্দ্রের হাতে এই রিপোর্ট তুলে দেওয়া হবে বলেও জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত, গতবছর আমফানের পরে ক্ষয়ক্ষতির হিসেব দিয়ে কেন্দ্রের কাছে ২০ হাজার কোটি টাকা দাবি করেছিল রাজ্য সরকার। কিন্তু সেইসময় প্রাথমিক ভাবে ১ হাজার কোটি টাকা এবং পরবর্তীতে আরও ২৭০৮ কোটি টাকা দেয় কেন্দ্র। এক্ষেত্রে প্রথমেই গত ২৮ শে মে কলাইকুন্ডায় প্রধানমন্ত্রীর হাতে ২০ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজ ধরিয়ে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। তবে ইতিমধ্যেই ২৫০ কোটি টাকা দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। এরপরই রাজ্যে এসেছে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। এখন এটাই দেখার আগের মতই ক্ষতিপূরণের অর্থদানে বিস্তর ফারাক থাকে, নাকি রাজ্যের দাবী মেনে নেয় কেন্দ্র!

Related Articles

Back to top button