আন্তর্জাতিকটাইমলাইনভারতরাজনীতি

নরেন্দ্র মোদী আর অভিনন্দনের পোস্টারে ঢাকল পাকিস্তানের রাস্তা, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ছবি

Bangla Hunt Desk: পাকিস্তানের (Pakistan) রাস্তায় দেখা গেল ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra modi) এবং ভারতীয় বিমান বাহিনী উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের ছবি। তাদের সঙ্গে একই ফ্রেমে দেখা গেল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ নেতা সর্দার আয়াজ সাদিকের ছবি। শনিবার লাহোরের বিভিন্ন রাস্তায় ছড়িয়ে পরা এই নির্বাচনী পোস্টার দেখে কিছুটা হকচকিয়ে যায় পাকিস্তানবাসী।

সর্দার আয়াজ সাদিকের বক্তব্য
পাকিস্তান (Pakistan) মুসলিম লীগ-নওয়াজ নেতা সর্দার আয়াজ সাদিক (Ayaz SadiqAyaz Sadiq) কিছুদিন আগেই পাকিস্তানের সংসদে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন, পাকিস্তানের সঙ্গে যুদ্ধের সময় যখন ভারতীয় বিমান বাহিনী উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে পাকিস্তানী সেনারা আটকে রেখেছিল, তখন ভারতের ভয়ে ভীত হয়ে পড়েছিল পাকিস্তান। ভারতের হামলার ভয় পেয়েছিল পাকিস্তান। এমনকি ওই রাতে পাক সেনা প্রধান বাজওয়ার পা ভয়ে থরথর করে কাঁপছিল।

তাঁর কথায় অভিনন্দনকে না ছাড়লে ভারত সেদিন রাত ৯ টার মধ্যে হামলা করেব বলেছিল। আর সেই কথাতেই পাকিস্তান ভয় পেয়ে অভিনন্দন বর্তমানকে ছেড়ে দেয়। কিন্তু আবার পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র জাহিদ হাফিজ জানিয়েছেন, সেদিন অভিনন্দন বর্তমানকে ছাড়ার জন্য পাকিস্তানের উপর কোনরূপ চাপ ছিল না।

সর্দার আয়াজ সাদিককে দেশদ্রোহী প্রমাণ করার চেষ্টা
সর্দার আয়াজ সাদিক এই কথা বলার পর থেকেই তাঁকে দেশের শত্রু বলে নির্বাচিত করা হয়েছে। সর্দার আয়াজ সাদিককে দেশদ্রোহী হিসাবে প্রমাণ করতেই লাহরের রাস্তায় কখনও প্রধানমন্ত্রী মোদী আবার কখনও উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের সঙ্গে তাঁর ছবির পোস্টার লাগানো হয়েছে। আবার ছবিতে অভিনন্দন বর্তমানের মত গোঁফও লাগানো হয়েছে তাঁর। এই ছবি স্যোশাল মিডিয়ায় ব্যাপক হারে ভাইরাল হয়ে যায়।

রাহুলকে কটাক্ষ নাড্ডার
পাকিস্তানের সংসদ থেকে প্রকাশিত হওয়া সর্দার আয়াজ সাদিকের ভিডিও প্রসঙ্গে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা, কংগ্রেস প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধীকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘কংগ্রেসের রাজপুত্র তো কোন ভারতীয়কেই বিশ্বাস করেন ন। তা সে সরকার, নাগরিক কিংবা সেনাবাহিনীই হোক না কেন। তাই তাঁর বিশ্বস্ত জাতি পাকিস্তানের এই ভিডিও থাকল তাঁর জন্য, এটা দেখে তিনি যদি কোন আশার আলো খুঁজে পান’।

Back to top button