টাইমলাইনবিনোদন

বলিউড ও হিটলারের জার্মানির মধ‍্যে কোনো তফাৎ নেই, ফের বিতর্কে নাসিরুদ্দিন শাহ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: আবারো বেফাঁস নাসিরুদ্দিন শাহ (naseeruddin shah)। সমকালীন বলিউডকে হিটলারের সময়কার জার্মানি বলে বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। বর্ষীয়ান অভিনেতার এমন মন্তব‍্য ঘিরেই নতুন করে শুরু হয়েছে বিতর্ক। এমনকি অনেকে বলিউডে বয়কটের ডাকও দিয়েছেন তাঁকে।

বলিউডে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন নাসিরুদ্দিন। বহু হিট ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি। কিন্তু ধর্ম নিয়ে কখনো বৈষম‍্য দেখেছেন তিনি বলিউডে? সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বর্ষীয়ান অভিনেতাকে এই প্রশ্ন করা হলে তাঁর জবাব, বলিউডে ধর্মীয় কারণে যদি বৈষম‍্য থাকত তবে তিন খান এখনো ইন্ডাস্ট্রির শীর্ষে থাকতে পারতেন না।


নাসিরের কথায়, বলিউডে শুধু অর্থের সম্মান রয়েছে। যার যত বেশি টাকা, যার ছবি যত বেশি টাকার ব‍্যবসা করছে তার তত বেশি সম্মান। এই প্রসঙ্গেই নাসিরুদ্দিন বলেন, বলিউডে ধর্ম নিয়ে বৈষম‍্য নেই ঠিকই কিন্তু সরকারের কৃতিত্ব প্রচার করার জন‍্য কিছু পরিচালক প্রযোজক সরকারের টাকায় কাজ করছে।

ছবির মাধ‍্যমে সরকারের গুণগান করার জন‍্য টাকা পাচ্ছেন এই কয়েকজন পরিচালক প্রযোজকরা। এমনকি ছবিতে সরকারের প্রচার করার জন‍্য কোনো মামলায় দোষীরাও নির্দোষ প্রমাণিত হয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ নাসিরের। তাঁর কথায়, হিটলারের সময়েও জার্মানির বহু বিখ‍্যাত পরিচালকদের নিয়ে নাৎজি সরকারের প্রচার করানো হত। সেই হিসেবে বলিউড ও হিটলারের কোনো পার্থক‍্য নেই বলেই মনে করেন নাসিরুদ্দিন।

কিছুদিন আগেই সোশ‍্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও বার্তায় নাসির বলেন, “আফগানিস্তানে তালিবানদের পুনরায় ক্ষমতায় ফেরা গোটা বিশ্বের কাছে নিঃসন্দেহে চিন্তার কারণ। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে ভারতীয় মুসলিমদের যে একাংশ বর্বরের মতো উদযাপন করছে তারাও কোনো অংশে কম ক্ষতিকারক না।”

স্পষ্ট ভাষায় নাসিরুদ্দিন প্রশ্ন ছোঁড়েন, যারা তালিবানের জয় উদযাপন করছেন তারা নিজেদের প্রশ্ন করুন, নিজের ধর্মকে নতুন করে তৈরি করতে চান নাকি পুরনো বর্বরতাকে সঙ্গী করেই বেঁচে থাকতে চান? অভিনেতা ভিডিও বার্তায় বলেন, ভারতীয় মুসলিমদের সঙ্গে বিশ্বের অন‍্যান‍্য মুসলিমদের অনেক পার্থক‍্য রয়েছে। কিন্তু তাঁর ভয় এমন কোনোদিন যেন না আসে যখন এই পার্থক‍্যটা মিটে যায়। সে দিন বাস্তবিকই ভয়ঙ্কর বলে দাবি করেছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা। তাঁর এই মন্তব‍্য নিয়েও বিতর্ক তৈরি হয়েছিল।

Related Articles

Back to top button