আন্তর্জাতিকটাইমলাইনভারত

আন্তর্জাতিক স্তরে ভারতের পাশে দাঁড়াচ্ছে প্রতিবেশী দেশগুলো, কোণঠাসা হচ্ছে পাকিস্তান

বাংলাহান্ট ডেস্ক: ভারতের (India) প্রতিবেশী দুই দেশ মালদ্বীপ (Maldives) এবং নেপাল (Nepal) আবারও নিজের বন্ধুত্বের নিদর্শন দেখাতে শুরু করে দিয়েছে। কিছুদিন পূর্বে নেপাল একটু বিরোধীতা করলেও, আবারও তারা ঠিক লাইনে চলে এসেছে। এই দুই দেশ আন্তর্জাতিক স্তরে নিজেদের পুরোনো বন্ধুত্ব দেখিয়ে পরম বন্ধুর উদাহরণ সৃষ্টি করছে।

ভারতের পাশে মালদ্বীপ
এবছরের শুরুতেই মালদ্বীপ IOC তে ভারতের পাশে দাঁড়ায়। SAARC দেশের বৈঠকে সমস্ত আশায় জল ঢেলে, ভারতের পাশে দাঁড়িয়ে নিজের বন্ধুত্ব জাহির করল মালদ্বীপ। SAARC বিদেশ মন্ত্রীদের বৈঠকে পাকিস্তান আরও একবার সার্ক সামিট শুরু করা কথা বললে, মালদ্বীপ সে প্রসঙ্গে হস্তক্ষেপ করায় বৈঠক স্থগিত হয়ে যায়। এই বৈঠক ২০১৮ সালে ইসলামাবাদে হওয়ার কথা থাকলেও সেই বৈঠক বর্তমানে স্থগিত করে দেওয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে পাকিস্তানের বিরোধিতা করি মালদ্বীপের বিদেশ মন্ত্রী আবদুল্লা শাহিদ বলেন, এই সময় পাকিস্তান SAARC সামিটের আতিথেয়তা করার মতো অবস্থায় নেই। এখনো গোটা বিশ্ব করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে চলেছে, আর এই সময় এই বৈঠক হওয়া নিয়ে চর্চা না করাই মঙ্গলজনক।

বন্ধুত্ব দেখাল নেপালও
মালদ্বীপের মতোই প্রতিবেশী বন্ধু দেশের পাশে দাঁড়াল নেপাল। ভারতের সুরে সুর মিলিয়ে নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা অলি (KP Sharma Oli) আতঙ্কবাদের বিরোধীতায় সরব হলেন। তাঁর কথায় পরিস্কার ফুটে উঠল, আতঙ্কবাদের বিরোধীতায় নেমেছে নেপাল।

সংযুক্ত রাষ্ট্রের এক ভিডিও কনফারেন্স বৈঠকে অন্তরাষ্ট্রীয় আতঙ্কবাদের তীব্র বিরোধিতা করে কে পি শার্মা অলি বলেন, নেপাল একদমই আতঙ্কবাদের সমর্থন করে না। আতঙ্কবাদিদের অসামাজিক কার্যক্রমের শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষেরা। তারা বারংবার সাধারণ মানুষের উপর হামলা চালাচ্ছে। এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে দ্রুতই আতঙ্কবাদের নিষ্পত্তি চায় নেপাল।

Back to top button