টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

প্রতিবাদের নতুন ভাষা রং তুলি : এনআরসি, সিএএ নিয়ে পথে নামবেন মমতা

দেশ জুড়ে এনআরসি , সিএএ নিয়ে একাধিক মানুষ যখন প্রতিবাদে নামছেন তখন সবখেকষত্রে মিতিং মিছিল করা তো পুরনো পন্থা। এর আগে প্রতিবাদ করতে গিয়ে দেশে আগুন জ্বলেছে, সরকারি সম্পত্তি নস্ট হয়েছে। কিন্তু জত দিন জাচ যা্চ্ছে তত প্রতিবাদের ভাষা আস্তে আস্তে বদলাতে শুরু করছে । মানুষ গাণ লিখে গান গেয়ে, কবিতার মাধ্যমে মঞ্চ থেকে প্রতিবাদ করেছে। প্রতিবাদের মাধ্যমে তাদের কথা মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিয়েছেন ।

কিন্তু এবারের প্রতিবাদের মাধ্যমটা একেবারে আলাদা। প্রতিবাদের নতুন ভাষা রং তুলি, আগামী ২৮শে জানুয়ারী প্রতিবাদের নতুন ভাষা নিয়ে কল কাতার পথে নাম বেন ৫০ জন শিল্পী । মমতার নেতৃত্বে রং-তুলি নিয়ে ওই প্রতিবাদে শামিল হতে চলেছেন এই সকল শিল্পী্রা৷ আগামী ২৮ জানুয়ারি কলকাতার মেয়ো রোডে গান্ধি মূর্তির পাদদেশে সরব হবেন মমতা৷ এইসময় ভারতের পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে মানুষ কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না এই নয়া আইন। আর সেই জায়গায় দাড়িয়ে একের পর এক বি্রোধী নেতারা প্রতিবাদে সরব হয়েছেন ।

 

 

 

কেন্দ্র সরকার এই নিয়মের পক্ষে হলেও বেশীর ভাগ মানুষ এই নিয়ম মানতে পারছেন না।  সংশোধনী নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি বিরোধী কবিতা ও গান লেখাও হয়েছে৷এই লেখা ‘অধিকার’ নামের এনআরসি বিরোধী গানে সুর দিয়েছেন ইন্দ্রনীল সেন৷ গানের পর এবার প্রতিবাদের ভাষা বদলাতে চলেছে। কারন প্রতিবাদ থামানো সম্ভব নয় সেটা বারংবার বুঝিয়ে দিয়েছেন মমতা।  এর আগে আগের সপ্তাহে কংগ্রেস একাধিকবার দলের তরফ থেকে প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

তিনি বারবার এক টাই কথা বলেছেন এই  এনআরসি, সিএএ মেনে নেওয়া হবে না। তাই নিওয়ে তাকে কম কথা শুনতে হয়নি। আর প্রদেশ কং গ্রেসের বিগত কয়েকদিন ধরে চলা প্রতিবাদে পার্ক সারকাসে সাধারন মানুষদের শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে। এনআরসি, সিএএ নিয়ে তাদের বোঝানো হচ্ছে। আর তার ওপর এবার নতুন প্রতিবাদে সরব হতে চলেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যপাদ্ধ্যায়

Back to top button