টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিশেষ

বিশ্বের মধ্যে প্রথম! ব্যান্ডেলের তাক লাগানো প্রযুক্তিতে রাতারাতি ভোল বদল হবে রেল পরিষেবায়

বাংলাহান্ট ডেস্ক : এবার নয়া পালক যোগ হল ব্যান্ডেল স্টেশনের মুকুটে। ইলেকট্রকিক ইন্টারলিং সিস্টেমে বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বড় রুট চালু হবে এখানেই। রেল সূত্রে খবর, আগামী ৩০ মে আনুষ্ঠানিক ভাবে ব্যান্ডেল।স্টেশনে চালু হবে এই নতুন প্রযুক্তি।

দেশের প্রায় শতাধিক স্টেশনে চালু রয়েছে এই ইলেকট্রনিক ইন্টারলিং সিস্টেম বা ইআইএস। কিন্তু এত বড় রুট বিশ্বের আর কোথাও নেই। এতদিন অবধি খড়্গপুরে ছিল ৮০০ টি রুট। এবার সেটিকেও ছাপিয়ে ১ হাজার দুটি রুট চালু হবে ব্যান্ডেল স্টেশনে। ৩০ মে অর্থাৎ উদ্বোধনের দিনই ওই রুটগুলি পরিদর্শন করবেন পূর্ব রেলের রেল সেফটি ম্যানেজার।

এতদিন অবধি এই স্টেশনে চালু ছিল ব্রিটিশ আমলের রুট রিলে ইন্টারলকিং সিস্টেম। এবার ম্যানুয়াল এই সিস্টেম বদলে পুরোপুরি অটোমেটিক এবং প্রযুক্তি নির্ভর ইআইএস চালু হতে চলেছে। এর জেরে শুধু ট্রেনেই গতিই বাড়বে নয়, একই রুটে চালানো যাবে অনেক বেশি ট্রেনও। ইন্ডোর মেন্টেনেন্সে কোনও মানুষের প্রয়োজন না হওয়ায় এবং নির্ভরতা না থাকায় কমবে রেল দুর্ঘটনার প্রবণতাও। ঘন কুয়াশাতেও সিগন্যালেও সমস্যা হবে না আর বলেই দাবি ইঞ্জিনিয়ারদের।

রেলের এসএসসি সিগন্যাল ওয়ার্কস হাওড়া অনিল কুমার মণ্ডল জানিয়েছেন, ‘এর আগেও রেলের নিরাপত্তা ছিলই। কিন্তু এখন আরও বেশি করেই পাওয়া যাবে নিরাপত্তা। এটা এতই অত্যাধুনিক যে এরকম এর আগে কোথাও হয়নি। ট্রেন কতদূর গিয়েছে বা যাচ্ছে আসছে সেটাও দেখা যাবে মনিটরে। ডুয়েল সিস্টেমে কাজ চলবে। কখনও একটা বসে গেলে আর একটা অটোমেটিক কাজ করবে।’ অন্যদিকে এই প্রযুক্তির দায়িত্বে থাকা সিমেনসের কৃষ্ণার্জুন চট্টোপাধ্যায়ের দাবি, ‘আগামীদিনে রেল ৪-৫ টা স্টেশনকে নিয়ে সেন্ট্রালাইজড কন্ট্রোল সিস্টেম করতে চাইলেও ইআই অনেক সাহায্য করবে। ট্রেনের ড্রাইভার সিগন্যাগ বুঝতে না পারলেও কোনও অসুবিধা হবে না এই প্রযুক্তির মাধ্যমে।’

Related Articles

Back to top button