টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভাইরাল

বিয়েতে ২০০ জন দুঃস্থ মানুষের খাবার ব‍্যবস্থা করে নজির গড়ল শিলিগুড়ির নবদম্পতি

বাংলাহান্ট ডেস্ক: সম্প্রতি একটি সমীক্ষা চালিয়েছে ওক্সফাম ইন্ডিয়া। সেখানে জানা গিয়েছে এক চাঞ্চ‍ল‍্যকর তথ‍্য। সমীক্ষা বলছে, ভারতের বাজেটের চেয়েও বেশি টাকা রয়েছে ৬৩ জন ধনকুবেরের পকেটে। অর্থাৎ সারা দেশের ৭০ শতাংশের যা সম্পদ তার চেয়ে চার গুণ বেশি সম্পত্তি রয়েছে ওই কয়েকজন ধনীর কাছে। স্বাভাবিক ভাবেই এই রিপোর্ট দেখে নিন্দার ঝড় উঠেছে বিভিন্ন মহলে। শুরু হয়েছে নানা গুরুগম্ভীর আলোচনা। কিন্তু এর সমাধান জানা নেই কারওরই। তাই এসব আলোচনায় না গিয়ে কাজে করে দেখালেন শিলিগুড়ির এক নবদম্পতি। বিয়ের অনুষ্ঠানে ২০০ জন দুঃস্থ মানুষের খাবার বন্দোবস্ত করে নজির গড়লেন তাঁরা।
গত ১৭ জানুয়ারি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন শিলিগুড়ির ডাবগ্রামের সমর মজুমদার ও সুস্মিতা মজুমদার। ১৯ জানুয়ারি ছিল বৌভাত। তারই আগের দিন ২০০ জন দুঃস্থ মানুষের খাবার আয়োজন করেন তাঁরা। সঙ্গে ছিল কম্বল বিতরনের ব‍্যবস্থাও। জানা গিয়েছে, আগে থেকেই সমস্ত পরিকল্পনা করে রেখেছিলেন সমর ও সুস্মিতা। সেই মতো খবর দেওয়া ছিল এক এনজিওতে। তারাই বেশ কিছু টোকেন বিলি করেন।


এছাড়াও ডাবগ্রাম এলাকার কিছু দুঃস্থ মানুষকেও দেওয়া হয় টোকেন। জানানো হয় তাঁদের এই ব‍্যবস্থার কথা। সেই মতো এদিন ২০০ জন উপস্থিত হন টোকেন নিয়ে। কাউকেই ফেরাননি নবদম্পতি। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সকলের পেট ভরে খাবার ব‍্যবস্থা করেন তাঁরা। সঙ্গে দেওয়া হয় কম্বলও। জানা গিয়েছে, এই ধরনের সমাজসেবামূলক কাজে এর আগেও এগিয়ে গিয়েছেন সমর ও সুস্মিতা। ভবিষ‍্যতে এ ধরনের কাজ আরও করতে চান বলেও জানান তাঁরা।
খবর প্রকাশ‍্যে আসতেই হইচই পড়ে যায়। ডাবগ্রামের মজুমদার পরিবারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে ওঠে সকলে। শুধুমাত্র মুখে না বলে তাঁরা যে কাজে করে দেখিয়েছেন তার জন‍্য সমর-সুস্মিতাকে সাধুবাদও জানান। পাশাপাশি তাঁদের আগামী জীবনের জন‍্য শুভকামনাই করেছেন বহু মানুষ।

Back to top button
Close