টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

দুর্নীতি দমনে কড়া পদক্ষেপ! নির্মল মাজিকে বরখাস্ত করল মমতা সরকার

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ শিক্ষা থেকে স্বাস্থ্য সর্বত্র দুর্নীতির অভিযোগ ওঠায় বাংলায় পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল হয়ে উঠেছে রাজ্য সরকারের পক্ষে। সেই কারণে বহুদিন আগে থেকেই কড়া হাতে দুর্নীতি দমন করার বিষয় মন্তব্য করে আসছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর এবার বাস্তবেও দেখা গেল সেই ঘটনা। অবশেষে এদিন কলকাতা মেডিকেল কলেজের রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান পদ থেকে সরানো হলো উলুবেড়িয়ার উত্তরের তৃণমূল বিধায়ক নির্মল মাজিকে।

তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ অবশ্য অনেকদিন ধরেই আর সেই কারণেই পদ থেকে বরখাস্ত হওয়ার একটি জল্পনা খবরের শিরোনামে উঠে এসেছিল। এবার সেই জল্পনাই  হলো সত্যি। নবান্নের পক্ষ থেকে এদিন একটি দশ লাইনের নির্দেশিকা জারি করে নির্মল মাজিকে সরানোর সিদ্ধান্ত জানানো হয়। তার জায়গায় বর্তমানে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পেতে চলেছেন সুদীপ্ত রায়।

তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিককালে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগের জন্যই নবান্নের এই সিদ্ধান্ত বলে মত বিশেষজ্ঞদের। তবে রাজ্যের পক্ষ থেকে এদিন বলা হয়, “কলকাতা মেডিকেল কলেজের রোগী কল্যাণ সমিতির কাজ সঠিকভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আমাদের পক্ষ থেকে একটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো। যেখানে নির্মল মাজিকে সরিয়ে চেয়ারম্যানের পদ দেওয়া হতে চলেছে সুদীপ্ত রায়কে।” উল্লেখ্য, সুদীপ্ত রায় শ্রীরামপুরের তৃণমূল বিধায়ক এবং বর্তমানে আরজিকর মেডিকেল কলেজের রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান পদে নিযুক্ত রয়েছেন। সূত্রের খবর, কলকাতা মেডিকেল কলেজের চেয়ারম্যান পদের পাশাপাশি হেলথ রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবেও সুদীপ্তকে নিয়োগ করতে চলেছে রাজ্য।

সাম্প্রতিককালে একাধিক দুর্নীতিতে নির্মল মাজির নাম উঠেছে। করোনা মহামারীর সময় টসিলিজুমাব ইনজেকশন গায়েব হওয়ার পিছনে তৃণমূল নেতার ঘনিষ্ঠের নাম উঠে আসে। এ ছাড়াও একাধিক সময় বিতর্কিত মন্তব্যের জন্যও সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় তাকে। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, এই সকল কারণেই এবার নবান্নের রক্তচক্ষুর সামনে পড়তে হলো উলুবেড়িয়ার তৃণমূল বিধায়ককে।

Related Articles

Back to top button