টাইমলাইনভারতরাজনীতি

কেন বিজেপির সঙ্গ ছাড়ল JDU? নিজেই জানালেন বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী নিতিশ কুমার

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) পর এবার বিহার (Bihar)। সাম্প্রতিক সময়ে একাধিকবার রাজনৈতিক পটভূমি পরিবর্তনের সাক্ষী থেকেছে মানুষ। সম্প্রতি মহারাষ্ট্রে উদ্ধব ঠাকরের পতনের পর সরকার পদে বসে একনাথ শিন্ডে-বিজেপি জোট। বর্তমানে একইভাবে পালাবদলের জল্পনা সৃষ্টি হয় বিহারে। দীর্ঘদিনের সঙ্গী  বিজেপির সঙ্গ ছাড়ার ইঙ্গিত কয়েকদিন ধরেই মিলছিলো আর এদিন অবশেষে ভারতীয় জনতা পার্টির (Bharatiya Janata Party) হাত ছাড়লেন জেডিইউ প্রধান নিতিশ কুমার (Nitish Kumar)। এর মাঝেই এবার বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসলেন তিনি। উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই নীতীশের এ বক্তব্য রাজ্য রাজনীতিতে তুমুল বিতর্কের সৃষ্টি করেছে।

বিগত কয়েকদিন ধরে বিহারের রাজনীতিতে পালাবদলের ইঙ্গিত মিলতে শুরু করে। এর মাঝে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীকে নিতিশ কুমারের ফোন এবং দলীয় সকল বিধায়ক ও সাংসদদের নিয়ে তাঁর বৈঠক ঘিরে একাধিক জল্পনার সৃষ্টি হয়। অবশেষে এদিন বৈঠক শেষে বিজেপির সঙ্গ ছাড়লেন নিতিশ। ইতিমধ্যেই রাজভবনে গিয়ে ইস্তফা দিয়ে এসেছেন তিনি। এর মাঝে আবার নিজের পুরনো জোট সঙ্গী বিজেপিকে নিয়ে তাঁর দাবি, “বিজেপির সঙ্গে কাজ করা মুশকিল হয়ে পড়েছিল। আমার দলের সাংসদ এবং বিধায়করা চাইছিল না ওদের সঙ্গে জোট রাখতে, তাই এই সিদ্ধান্ত।”

বিশেষজ্ঞদের মতে, সম্ভবত আজই আরজেডি এবং কংগ্রেসকে জোট সঙ্গী করে বিহারের মসনদে পুনরায় বসতে চলেছেন নিতিশ কুমার। উল্লেখ্য, এদিন দলীয় বিধায়ক এবং সাংসদদের নিয়ে বৈঠক করেন জেডিইউ। সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে যে, আজ দলীয় বৈঠকে নিতিশ কুমার সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, “আমাদের অপমান করেছে বিজেপি। জেডিইউকে দুর্বল করার জন্য ওরা একাধিক চেষ্টা করেছিলো” আর এরপরেই নিতিশের জোট ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে বিহারের রাজনীতিতে জোর জল্পনার সৃষ্টি করেছে।

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে জেডিইউ-এর সঙ্গে জোট করতে তৎপর হয়ে উঠেছে কংগ্রেস এবং তেজস্বী যাদবের দল। সূত্রের খবর, তেজস্বী যাদবকে উপ মুখ্যমন্ত্রীর পদ দেওয়া হতে পারে। একই সঙ্গে, বিরোধী শক্তির উত্থানের ফলে ক্রমশই চিন্তা বেড়ে চলেছে বিজেপির। ইতিমধ্যে এই প্রসঙ্গে তাদের কোর কমিটি একটি বৈঠকে বসেছে বলে খবর।

Related Articles