টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

৭ হাজার টাকায় কফি, ৩ হাজার টাকায় কলা! চরম খাদ্য সংকট কিমের দেশে

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ উত্তর কোরিয়ার (North Korea) স্বৈরাচারী শাসক কিম জং উন-এর (Kim Jong-un) দেশে খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। উল্লেখ্য, কিমের দেশে খাবারের দাম আকাশ ছুঁয়েছে। দেশের স্বৈরাচারী শাসক কিম জং উনও স্বীকার করেছেন যে, দেশের অবস্থা ভালো নয়। উত্তর কোরিয়ার সরকারি নিউজ এজেন্সি কোরিয়াল সেন্ট্রাল অনুযায়ী, কিন জং উন বলেছেন ‘দেশের মানুষের জন্য বর্তমান পরিস্থিতি এখন চিন্তাজনক। গত বছরের হওয়া ঝড়ের কারণে কৃষি ক্ষেত্র খাদ্যশস্য উৎপাদন করতে ব্যর্থ হয়েছে।”

রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, নর্থ কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়াংয়ে খাদ্য সংকট এতটাই ভয়াবহ জায়গায় পৌঁছেছে যে, সেখানে খাবারের দাম শুধু আকাশ ফুটো করে উপরে উঠে গিয়েছে। রাজধানীতে এক কেজি কলার দাম ৩ হাজার ৩৩৫ টাকা, ব্ল্যাক টিয়ের একটি প্যাকেটের দাম ৫ হাজার ১৯০ টাকা। কফির একটি প্যাকেটের দাম ৭ হাজার ৪১৪ টাকার আশেপাশে।

সেন্ট্রাল কমিটির বৈঠকে কিম জং দলের নেতাদের শীঘ্রই খাদ্যাভাব দূর করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, নর্থ কোরিয়ার কৃষি উৎপাদন ব্যর্থ হওয়াতেই এই খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। ইউনাইটেড নেশনের ফুড অ্যান্ড অ্যাগ্রিকালচার অর্গানাইজেশনের একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, নর্থ কোরিয়ার কাছে ৮ লক্ষ ৬০ হাজার টনের ভোজনের অভাব রয়েছে।

কিম জং উন শীঘ্রই এই সংকট দূর করার নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত খাদ্যাভাব দূর করার পরামর্শই কেউ দিতে পারছে না। আরেকদিকে, করোনার কারণে উত্তর কোরিয়ার বর্ডারও বন্ধ হয়েছে। যদিও, ওই দেশে এখনও পর্যন্ত করোনার কোনও কনফার্ম কেস মেলেনি।

Related Articles

Back to top button