টাইমলাইনবিনোদন

দক্ষিণের ঢের আগেই ব্লকবাস্টার ট্রেন্ড শুরু করে বলিউড! ‘পুষ্পা’নয়, গত দু বছরে সফলতম ছবি রয়েছে হিন্দি ইন্ডাস্ট্রিতে

বাংলাহান্ট ডেস্ক: গত দু বছর ধরে বলিউডের (Bollywood) দুর্দিন চললেও একথা অনেক বড় নিন্দুকও স্বীকার করবে, হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি কিন্তু নেহাত হেলাফেলা নয়। ভারতীয় চলচ্চিত্রে হিন্দি সিনেমার অবদান অনেক। দশকের পর দশক ধরে অগুন্তি হিট, সুপারহিট ছবি তৈরি হয়েছে বলিউডেই। কয়েকটি ব্লকবাস্টার ছবি বানিয়ে দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রি (South Film Industry) যে কখনোই বলিউডের সঙ্গে টেক্কা দিতে পারবে না তা ফিল্ম সমালোচকরাও মানবেন।

গত কয়েক বছরে সুপারহিট ছবির তালিকায় দক্ষিণী দুনিয়ারই রমরমা। বলিউড হালে পানিই পায়নি। আসমুদ্রহিমাচলের দর্শকদের হলমুখো করেছে পুষ্পা, কেজিএফ ২, আর আর আর এর মতো ছবি। আর ব‍্যতিক্রম হিসাবে ছিল বলিউডের সূর্যব‌ংশী, দ‍্য কাশ্মীর ফাইলসের মতো ছবি। কিন্তু একথা জেনে অবাক হবেন, ২০১৯ এবং ২০২০ তে সবথেকে সফল ভারতীয় ছবির তকমা কিন্তু দক্ষিণের কোনো ছবিই পায়নি।


গত বছর হওয়া সমীক্ষা অনুযায়ী, অজয় দেবগণ এবং সইফ আলি খান অভিনীত ‘তানাজি: দ‍্য আনসাং ওয়ারিয়ার’ (Tanhaji The Unsung Warrior) ছবিটি ২০১৯ এবং ২০২০ সালের মধ‍্যে সফলতম ভারতীয় ছবি হিসাবে নির্বাচিত হয়েছে। গোটা দেশে ২৮০ কোটি টাকার ব‍্যবসা করেছিল তানাজি। আর আন্তর্জাতিক বাজারে ৩.৬৭ বিলিয়ন অর্থাৎ প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকার ব‍্যবসা করেছিল এই ছবি।

পরবর্তীকালে যে দক্ষিণী ছবিগুলি ব্লকবাস্টার হয়েছিল, তার আগেই ব্লকবাস্টার ছবির ট্রেন্ড শুরু করে দিয়েছিল বলিউড। দেশপ্রেম নিয়ে ছবি বরাবরই বলিউডের জন‍্য সৌভাগ‍্য বয়ে এনেছে। সে সময়ে তানাজির সমকক্ষ কেউই ছিল না। তারপর অক্ষয়ের সূর্যবংশী হিট হলেও ১৯৫ কোটির ব‍্যবসা করে ক্ষান্ত হয়েছিল।

ওম রাউত পরিচালিত তানাজিতে অজয় দেবগণ ছাড়াও ছিলেন সইফ আলি খান এবং কাজল। করোনার ঠিক আগে আগে ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে মুক্তি পেয়েছিল তানাজি: দ‍্য আনসাং ওয়ারিয়ার।

Related Articles