টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

গলা জড়িয়ে জয় শ্রী রাম বলুন, গলা টিপে নয়: ভাইরাল নুসরত জাহানের ভিডিও

বাংলাহান্ট ডেস্ক: এক বছরেই রাজনীতির ঘাতঘোঁত বেশ চিনে গিয়েছেন অভিনেত্রী তথা তৃণমূল (tmc) সাংসদ নুসরত জাহান (nusrat jahan)। দিদি মমতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়ের থেকে রাজনৈতিক শিক্ষা নিয়ে তাই এবার কেন্দ্রীয় শাসক দলকে একের পর এক তোপ দেগে চলেছেন নুসরত।

সামনেই একুশের নির্বাচন। এই সময় বিজেপিকে (bjp) এক চুলও জমি ছাড়তে রাজি নয় তৃণমূল। তাই কখনো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কখনো স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বিরুদ্ধে তোপ দেগে চলেছেন সাংসদ অভিনেত্রী। এবার নিজের একটি পুরনো ভিডিও শেয়ার করেছেন নুসরত যেখানে পরোক্ষ ভাবে বিজেপিকে কটাক্ষ করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে।


একটি পুরনো সাক্ষাৎকারের ভিডিও শেয়ার করেছেন তৃণমূলের সাংসদ অভিনেত্রী। সেখানে তাঁকে বলতে শোনা যায়, “ভগবানের নামে স্লোগান দেওয়ায় কোনো ক্ষতি নেই। কিন্তু আপনি জয় শ্রী রাম’ গলা জড়িয়ে বলুন, গলা টিপে নয়।”

এক ব‍্যক্তি নুসরতের এই ভিডিওটি টুইট করেছেন। সেই ভিডিওই রিটুইট করেছেন অভিনেত্রী। আর এই ভিডিও এখন ভাইরাল সোশ‍্যাল মিডিয়ায়। নাম না করে ফের যে কেন্দ্রীয় শাসক দলকে কটাক্ষ করেছেন তিনি তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

কিছুদিন আগেই বিজেপির রাজ‍্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সাম্প্রতিক বিতর্কিত ভাষনকে হাতিয়ার করে এবার সোচ্চার হয়েছেন নুসরত। সম্প্রতি এক সভায় দিলীপ ঘোষের বক্তৃতা নিয়ে তুমুল সমালোচনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

ভাষনে বিজেপি রাজ‍্য সভাপতি বলেন, “পুলিসের লোক যারা নেতাদের চামচাগিরি করছেন, পকেট ভরছেন, আনন্দে আছেন। এই আনন্দ আর বেশিদিন টিকবে না। এক বছর পরে বউ বাচ্চার মুখ দেখতে দেব না। এখানে দু নম্বরি করে ছেলেকে ব‍্যাঙ্গালোরের কলেজে ভর্তি করেছেন। ওদের পড়াশোনা শেষ হবে না। ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার হবে না। তাদের পরিযায়ী শ্রমিক করে ছাড়ব।”

তিনি আরও বলেন, “সকালে উঠেই ফোন আসে আমাদের অমুককে ধরে নিয়ে গেছে পুলিস। কি পাপ করেছে ওরা? বিজেপি করা পাপ? যদি তাই হয়ে থাকে আবার করব। কতজনকে অ্যারেস্ট করবে ওরা?”

দিলীপ ঘোষের এই বিতর্কিত ভাষনের ভিডিও টুইটারে শেয়ার করেছেন নুসরত। বিজেপি নেতাকে একহাত নিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘এভাবেই বিজেপির রাজ‍্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বাবু ‘সোনার বাংলা’ বানানোর পরিকল্পনা করেন। স‍্যর, আপনার রক্তে ভেজা হাতে রাজ‍্য মৃত‍্যু ও ধ্বংসের ভয়াবহতায় ডুবে যাবে।’ সঙ্গে হ‍্যাশট‍্যাগ দিয়ে লেখেন, বিজেপি মানেই হিংসা।

Back to top button
Close