টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

অবশেষে নড়ল টনক, ‘নিখোঁজ’ পোস্টারের পর সারাদিন বসিরহাটেই পড়ে রইলেন সাংসদ নুসরত জাহান

বাংলাহান্ট ডেস্ক: কিছুদিন আগেই খোঁজ খোঁজ রব উঠেছিল। নুসরত জাহান (Nusrat Jahan) নাকি নিখোঁজ! সোশ‍্যাল মিডিয়ায় ব‍্যাপক সক্রিয়। এদিক ওদিক ঘুরেও বেড়াচ্ছেন দিব‍্যি। অথচ বসিরহাটে দেখা নেই নুসরতের। তাই রাতারাতি নিখোঁজ পোস্টার পড়ে গিয়েছিল বসিরহাটে।

না, তখন কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি নুসরতের। তার বদলে হাতে কলমে জবাব দিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার গোটা দিনটা বসিরহাটের মানুষজনদের মাঝে কাটালেন নুসরত। তারকাসুলভ রূপ না, সাদামাটা সালোয়ার কামিজে তাঁর দেখা মিলল সাংসদ রূপে।


এদিন বসিরহাট কলেজে সংষ্কারের কাজ নিজে উপস্থিত থেকে পর্যবেক্ষণ করেছেন নুসরত। বৈঠক করেছেন কলেজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে। পাশাপাশি আধুনিক ধাঁচে ‘আই লভ বসিরহাট’ ফলকটিও গিয়ে দেখে এসেছেন অভিনেত্রী সাংসদ। নুসরতকে পেয়ে অবাক এবং আপ্লুত বসিরহাটবাসীরা।

তবে নিজের গ্ল‍্যাম অবতারটাও দেখাতে ছাড়েননি নুসরত। সোশ‍্যাল মিডিয়ায় নীল সাদা প্রিন্টের ক্রপ টপ এবং গাঢ় নীল শর্টস পরে পোজ দিয়েছেন তিনি। সূর্যকিরণকে ছাপিয়ে উপচে পড়ছে নুসরতের গ্ল‍্যামার। ভাইরাল হয়েছে সেই ছবিও।

প্রসঙ্গত, মা হওয়ার পরপরই নিজের লোকসভা কেন্দ্রে দেখা গিয়েছিল নুসরতকে। সেখানকার ক্ষুব্ধ বাসিন্দাদের উদ্দেশে অভিনেত্রী সাংসদের সাফাই ছিল, তাঁর ছেলে তো ছোট। মাকে দিয়ে এত কাজ করালে হবে? তারপর এতদিন বসিরহাটে সশরীরে না গেলেও সঙ্গী যশের সঙ্গে প্রায়ই এদিক ওদিক ঘুরে বেড়াতে দেখা গিয়েছে নুসরতকে।

ফলাফল, ‘সাংসদের সন্ধান চাই’ বলে পোস্টার। তারপর কোনো প্রতিক্রিয়া না দিলেও টুইটে প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ  করতে দেখা গিয়েছিল নুসরতকে। বদলে ট্রোলডও হয়েছিলেন নুসরত। যদিও কোনোবারেই কোনো কটাক্ষে মাথা ঘামাননি অভিনেত্রী সাংসদকে।

Related Articles

Back to top button