টাইমলাইনবিনোদন

টলিউডেও রয়েছে বাড়তি ওজন নিয়ে নাক সিঁটকানি! ওজন কমিয়ে ছিপছিপে হয়ে বিষ্ফোরক ঐন্দ্রিলা

বাংলাহান্ট ডেস্ক: আপাদমস্তক ভোল বদল করে বড়সড় চমক দিয়েছেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা সেন (oindrila sen)। ওজন একেবারে কমিয়ে এনে লুকটাই বদলে ফেলেছেন তিনি। হবু স্ত্রীকে দেখে মুগ্ধ অঙ্কুশ হাজরা। হতবাক নেটনাগরিকরাও। এমন লুক বদল করলেন কীভাবে ঐন্দ্রিলা? কতটা কঠিন ছিল সফরটা?

আগে তাঁর ওজন ছিল ৭১ কেজি। সেখান থেকে কমিয়ে এনেছেন ৫৬ কেজিতে। ওজন বাড়ার কারণ হিসাবে ঐন্দ্রিলা দায়ী করেন দীর্ঘ লকডাউনকে। গৃহবন্দি হয়ে থেকে বাড়ছিল ওজন। এদিকে শরীরচর্চাও করতে ইচ্ছা করছিল না। মাঝে অবশ‍্য অঙ্কুশের সঙ্গে ‘ম‍্যাজিক’ ছবিতে কাজ করার সময়ে ওজন কিছুটা কমেছিল তাঁর। কিন্তু নিজেকে নিয়ে সন্তুষ্ট হতে পারছিলেন না তিনিই। বাড়তি ওজনের জন‍্য মনমতো চরিত্রও পাচ্ছিলেন না।


তাই শেষমেষ নিজেই উঠেপড়ে লাগেন ঐন্দ্রিলা। গত বছরের জুন মাস থেকে শরীরচর্চা আর ডায়েট শুরু করেছিলেন তিনি। অবশ‍্য অন‍্যান‍্যদের মতো খাওয়া দাওয়া শিকেয় তুলে ডায়েট তিনি করেননি। তবে খাবারের পরিমাণ কমিয়ে দিয়েছিলেন অনেকটাই। দিনে মোট ছয় বার খাবার খেতেন তিনি।

দিনে ছটা কুসুম ছাড়া ডিম, শাক সবজির স‍্যুপ, শশা, প্রোটিন শেক এসবই থাকত। কিন্তু প্রথম দু মাসে কোনো ফল পাননি ঐন্দ্রিলা। তারপরেই শুরু করেন কঠোর শরীরচর্চা। ধীরে ধীরে কমতে থাকে ওজন। ততদিনে কড়া ডায়েট কিছুটা লঘু হয়েছে। দুপুরে স‍্যুপের বদলে কম করে ভাত খাওয়ার অনুমতি পেয়েছেন ঐন্দ্রিলা।

এখন বাড়িতে তৈরি খাবারই খান তিনি। এমনকি মাঝে মধ‍্যে ইচ্ছা হলে মাছ, মাংসও থাকে পাতে। বাদ দিতে হয়েছে অবশ‍্য পছন্দের অনেক জিনিসই। যেমন চিনির বদলে নিতে হয় গুড়। দুধের বদলে আমন্ড মিল্ক। কেকের মতো লোভনীয় জিনিসকে তো একেবারেই বিদায় জানাতে হয়েছে ঐন্দ্রিলাকে।

তবে একটা খাবারকে শত বারণেও ছাড়তে পারেননি ঐন্দ্রিলা। তা হল ফুচকা। টক, ঝাল মুখরোচক স্ন‍্যাক্সটি সপ্তাহে এক দিন তাঁর চাইই চাই। ঐন্দ্রিলা জানান, নিজের বাড়তি ওজনের জন‍্য কিছু ছবির প্রস্তাব ছেড়ে দিতে হয়েছে তাঁকে। এমনকি ওজন নিয়ে নাক সিঁটকানিও শুনতে হয়েছে। কিন্তু হাল ছাড়েননি ঐন্দ্রিলা। আর ইচ্ছার যে জয় হয় তা তো অভিনেত্রীকে দেখেই স্পষ্ট।

Related Articles

Back to top button