টাইমলাইনবিনোদনভিডিও

গণপতি বিসর্জনে ফের মেজাজ হারালেন সলমন, চোখ পাকিয়ে যা কাণ্ড করলেন ভিডিও ভাইরাল হল সোশ‍্যাল মিডিয়ায়!

বাংলাহান্ট ডেস্ক: সম্প্রতি গণেশ চতুর্থীতে (ganesh chaturthi) গণপতি বাপ্পার (ganpati bappa) পুজো করলেন সলমন খান (salman khan)। এবছর আড়ম্বরের সঙ্গে না হলেও বোন অর্পিতা শর্মার বাড়িতে সপরিবারে নিষ্ঠার সঙ্গে পুজো সারতে দেখা গেল ভাইজানকে। বাড়িতেই পরিবেশ বান্ধব ভাবে গণপতির বিসর্জনের ব‍্যবস্থা করেছিল খান পরিবার। সেখানেই ফের মেজাজ হারিয়ে রুদ্রমূর্তিতে দেখা দিলেন সলমন।

কথায় কথায় মেজাজ হারানো সলমনের ক্ষেত্রে নতুন কিছু নয়। মিডিয়ার সামনেই রাগ প্রকাশ করে বহুবার সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছেন সল্লু মিঞা। এবারেও তার ব‍্যতিক্রম হল না। উপরন্তু এবার ভাইজান রাগলেন খাস পাপারাৎজির উপরেই। গাড়ি থেকে নেমে পাপারাৎজিকে দেখেই চোখ পাকিয়ে এগিয়ে আসতে দেখা যায় তাঁকে।


কিন্তু তারকাদের সঙ্গে সঙ্গে পাপারাৎজির ঘৌরাটা তো নতুন কিছু নয়। তাহলে হঠাৎ কি এমন হল যে এমন দিনে মেজাজ হারালেন সলমন? আসলে সামাজিক দূরত্ব শিকেয় তুলে অভিনেতার ছবি তোলার জন‍্য যেভাবে সংবাদমাধ‍্যমের ক‍্যামেরা ব‍্যাকুল হয়ে পড়েছিল তা দেখেই রেগে যান তিনি।

এগিয়ে এসে পাপারাৎজির উদ্দেশে বলেন, ‘এই হচ্ছে সোশ‍্যাল ডিসট‍্যান্সিংয়ের নমুনা’। নিজের ফোন বার করে পাপারাৎজির ছবি তোলারও ভান করেন সলমন। সেই ঘটনার ভিডিও এখন ভাইরাল নেটদুনিয়ায়।

প্রসঙ্গত, শনিবার মুম্বইতে বোন অর্পিতা খান শর্মা ও ভগ্নীপতি আয়ুষ শর্মার বাড়ি হাজির হন সলমন খান। সঙ্গে ছিল বাবা সেলিম খান, মা সলমা খান, হেলেন, দাদা আরবাজ খান, ভাই সোহেল খান সহ পরিবারের বাটি সকলেই। সেখানেই গণপতি বাপ্পার পুজো করেন অভিনেতা।

সলমনের ভগ্নীপতি অতুল অগ্নিহোত্রী গণেশ পুজোর আরতি করার ভিডিও শেয়ার করেছেন ইনস্টাগ্রাম হ‍্যান্ডেলে। প্রথমে সেলিম, সলমা, হেলেন তারপর সলমন, আরবাজ, সোহেল সকলকেই আরতি করতে দেখা যায়। আদরের ভাগ্নে আহিলের হাত ধরে তাকে আরতি করতে সাহায‍্য করেন সলমন।

এছাড়া দুই ছেলে মেয়ে আহিল ও আয়াতের খুনসুটির ছবিও শেয়ার করেছেন আয়ুষ শর্মা। সেই সব ছবি, ভিডিও এখন ভাইরাল নেটদুনিয়ায়। প্রতি বছরই জাঁকজমকের সঙ্গে গণেশ পুজো করেন সলমন। গত বছর বিসর্জনে তাঁকে ঢাক বাজিয়ে নাচতেও দেখা গিয়েছিল। তবে এবার করোনা পরিস্থিতির জন‍্যই ঘরোয়া ভাবেই পুজো সেরেছে খান পরিবার। বিসর্জনেও ভাগ্নে আহিলকে কোলে নিয়েই গণপতির আরতি করতে দেখা যায় সলমনকে।

Related Articles

Back to top button