টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

কোহলির শতরান মাঠে ও বাজারে শতরান পিঁয়াজের, নাজেহাল মধ্যবিত্ত,কবে মিলবে সুরাহা!

 

 

বাংলা হান্ট ডেস্ক : শুধু কলকাতা বা শহরতলির বাজারে নয়। আপনি গ্রামাঞ্চলের বাজারে যদি একটু ব্যাগ নিয়ে মেঠোপথে হাঁটাহাঁটি করেন তবে হাটে-বাজারে ও দেখতে পাবেন সেই ধরনের পিয়াজের অগ্নিমূল্য। আপনার হাতে ছ্যাকা লাগানোর জন্য যথেষ্ট। বাংলায় পিয়াজ উৎপাদন কম হয়। মহারাষ্ট্রের নাসিক, কর্ণাটকের মাকলি ও অন্ধ্রের কুরনুল থেকে আমদানি করা হয়। চলতি বছরে অতি বৃষ্টিতে বন্যা পরিস্থিতি নাসিক ও মাকলিতে। ক্ষতি হয়েছে পিয়াজ চাষে। এর জেরে উৎপাদন তলানিতে। যার প্রভাব পড়েছে পাইকারি বাজারে। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে পেট্রোলের মূল্যবৃদ্ধি ও পরিবহণগত নানা সমস্যা। নাসিক থেকে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও মধ্যপ্রাচ্যে পেঁয়াজ রফতানি গত কয়েক বছরে বেড়েছে। এর জেরে বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহে টান পড়েছে।

হেঁশেলে আগুন। এই আগুন কবে নিবে কোন ঠিক নেই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। কলকাতা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন বাজারে একই ছবি। মে মাসের আগেও খুচরো বাজারে ৩৫ থেকে ৪৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছিল পেঁয়াজ। দাম দ্বিগুণ হওয়ায় জেরবার ক্রেতারা।

রাজধানী দুরন্ত ট্রেনের যাওয়ার চেয়ে দ্রুত গতিতে বেড়ে চলেছে পেঁয়াজের দাম। হ্যা হাসবেন না কিন্তু। বাজারে গেলে আপনারও চোখ দিয়ে জল বেরিয়ে যেতে পারে। বেড়ে চলেছে পেঁয়াজের দাম পৌঁছল ১০০ টাকায়। পেঁয়াজের লাগামছাড়া দামে পকেটে টান মধ্যবিত্তের। কলকাতার বাজারে ১০০ টাকা কিলো পেঁয়াজ , চিন্তায় মার্কেটের পেঁয়াজ পট্টির ব্যবসায়ীরাও।

Related Articles

Back to top button