fbpx
টাইমলাইনভারত

অলঙ্কার যখন অস্ত্র, নিরাপত্তা দেবে ধর্ষকদের হাত থেকেও

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বর্তমান পরিস্থিতিতে রাতের বেলা একা একটি মেয়েকে (Girl) রাস্তা-ঘাটে বেরোতে দিতে ভয় পায় বাড়ির লোকজন। মেয়েদের নিরাপত্তা (Saftey) নিয়ে অনেক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলেও, মেয়েরা কিন্তু বিভিন্ন ক্ষেত্রে এখনও সুরক্ষিত নন। তাই মেয়েদের নিরাপত্তা আরও বাড়িয়ে তোলার জন্য এক অভিনব কানের দুল (Earrings) বানিয়ে চমকে দিলেন বারাণসীর (Varanasi) অশোক ইনস্টিটিউটে রিসার্চ অ্যান্ড ডেভালপমেন্ট বিভাগের গবেষক শ্যাম চৌরাসিয়া (Shyam Chaurasia)

 

৪৫ গ্রাম ওজোন এবং ইঞ্চি লম্বা এই ঝুমকো কানের দুলের বিশেষত্ব হল  এর ডিভাইসে টি ৭০ ভোল্টের ব্যাটারি এবং ২টি সুইচ রয়েছে। প্রথম সুইচ বন্দুকের ট্রিগারের কাজ করবে এবং দ্বিতীয় সুইচ অন করলে ১১২ এবং ১০০ নম্বরে ফোন যাবে। লাল এবং সবুজ লঙ্কার গুঁড়ো দিয়ে তৈরি এই ঝুমকো বন্দুকের গুলি (Shot)। এই কানের দুল দুটি মোবাইল ফোনের সঙ্গে সংযোগ করা থাকবে। দুল ব্যবহারকারী বোতাম টিপলেই ১১২ এবং ১০০ এই দুই এমারজেন্সি নম্বরে তৎক্ষণাৎ ফোন চলে যাবে।

 

দীর্ঘ চার মাস ধরে শ্যাম চৌরাসিয়া এই অভিনব গহনা যন্ত্রটি তৈরি করেন। এটির ওজোন খুব বেশি নয়। সকলেই ব্যবহার করতে পারবেন। একবার মাত্র এক ঘন্টা চার্জ দিলেই এই কানের দুল প্রায় এক সপ্তাহ ভালোভাবে কাজ করবে। এই স্মার্ট দুল তৈরিতে এক জোড়া ঝুমকোর খরচ পড়েছে মাত্র ৪৫০ টাকা।

 

দুল প্রসঙ্গে শ্যাম চৌরাসিয়া বলেন, দেশ জুড়ে ক্রমবর্ধমান ধর্ষণ এবং শ্লীলতাহানির ঘটনা প্রতিরোধ করার উদ্দ্যেশ্যেই এই গয়না তৈরি করা হয়েছে। এই ঝুমকোর মাধ্যমে ইভটিজার থেকে ধর্ষকদের কর্মকান্ডের সরাসরি মোকাবিলা করা যাবে। এই দেখতে যেমন সুন্দর, তেমনই ভয়ঙ্কর এর কাজ। এই ঝুমকো দুল যে কোনও মোবাইলের ব্লুটুথের সঙ্গে সংযোগ করা যাবে। যে মহিলা এই দুল ব্যবহার করবেন তাঁর কোনও বিপদ বুঝলেই এই ঝুমকো থেকে লাল এবং সবুজ লঙ্কাগুঁড়োর গুলি বের হবে। এই ঝুমকোর অপর একটা গুরুতবপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হল এই দুল বন্দুক প্রয়োজন বুঝে ১০০ এবং ১১২ নম্বরে ডায়ালেও করে দেবে।

Back to top button
Close
Close