টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

ভারতের ভয়ে সূর বদলালো পাকিস্তান! এবার আর যুদ্ধে না, কূটনৈতিক দিক থেকে সমাধান খুঁজছে ইমরান সরকার

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ জম্মু কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা হটিয়ে কেন্দ্র শাসিত রাজ্য বানানোর পর থেকেই ভারতের উপর চরম তেতে আছে পাকিস্তান। আর এই কারণেই ভারতকে যুদ্ধের হুমকি এবং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ভারতে আবার পুলওয়ামার মতো কাণ্ড ঘটানোর হুমকি দিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁরা যতই হুমকি দিক না কেন, ভারতের ভয় তাঁদের মাথায় সবসময় বিরাজমান। আর এই জন্যই এবার তাঁরা সূর নরম করতে বাধ্য।

উপত্যকা থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার পরের দিনে ইমরান সরকারের নেতা এবং মন্ত্রীরা ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার হুঁশিয়ারি দিয়েছিল। কিন্তু ভারত নিজের যায়গা থেকে না সরার জন্য, এবং কাশ্মীরে আরও বেশি করে সেনা মোতায়েন করাতে তথা পাক অধিকৃত কাশ্মীরের ৩০ কিমি ভিতরে থাকা জঙ্গি ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দেওয়াতে পাকিস্তানের ভয়ার্ত চেহারা আবারও ফুটে উঠেছে। এবার তাঁরা যুদ্ধ না, কূটনৈতিক দিক থেকে সমস্যা মেটানোর কথা বলেছে। আর এই কারণেই পাকিস্তান ভারতের সাথে ব্যাবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে। যদিও পাকিস্তানের এই সিদ্ধান্তের পর সবাই বলছে যে, পাকিস্তান নিজের পায়ে নিজেই কুড়ুল মেরে বসল।

পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি বৃহস্পতিবার বলেন, আমাদের সরকার ভারতের সাথে বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য কূটনৈতিক দিকের উপর ভরসা করছে। এছাড়াও ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার বিরুদ্ধে আইনি বিকল্প খোঁজার চেষ্টা চালাচ্ছে পাকিস্তান। বৃহস্পতিবার উনি স্পষ্ট করে দেন যে, পাকিস্তান ভারতের বিরুদ্ধে কোনরকম যুদ্ধ করবেনা।

বিদেশ মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেন যে, ভারত কাশ্মীরে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করেছে। এই সময় কাশ্মীরে ৯ লক্ষ জওয়ান মোতায়েন আছে, যেটা বিশ্বের কোন দেশেই একটি যায়গায় মোতায়েন করা সেনার থেকে অনেক অনেক গুন বেশি। আপাতত পাকিস্তান কাশ্মীরের পরিস্থিতির উপর নজর রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আরেকদিকে ৩৭০ ধারা বিলুপ্ত করার জন্য পাকিস্তান ভারতের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে নালিশ জানানোর কথা জানায়।

Related Articles