টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

চীনেও অপমানিত পাকিস্তান! কুরেশিকে স্বাগত জানানোর জন্য এলো না চীনের কোনও আধিকারিক

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ মাথার উপর থেকে হাত তুলে নিয়েছে সৌদি আরব (Saudi Arabia)। সেই কারণে পাকিস্তানের (Pakistan) বিদেশ মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি (Shah Mahmood Qureshi) চীনকে প্রসন্ন করতে বৃহস্পতিবার চীন সফরে যান। কিন্তু চীনের বিমানবন্দরে ওনাকে যেভাবে স্বাগত জানানো হয়, সেটা কেউই কোনদিনও কল্পনা করতে পারেনি। চীনের থেকে আর্থিক সাহায্য চাওয়ার জন্য বেজিংয়ে পৌঁছান পাক বিদেশ মন্ত্রী সৌদি আরবে বাজওয়ার থেকে বেশি অমানিত হয়েছে। চীনের জিনপিং সরকার প্রটোকলের বিপরতে কুরেশিকে স্বাগত জানানোর জন্য কোন বড় অফিসার কে না পাঠিয়ে একজন সাধারণ কনস্টেবল কে পাঠিয়েছে। এটা কোন অংশে অপমানের থেকে কম না।

সাধারণত দেখা যায় যে, যখন কোন দেশের বিদেশ মন্ত্রী বিদেশ সফরে যান, তখন ওনাকে স্বাগত জানানোর জন্য সেই দেশের বিদেশ মন্ত্রী এবং দেশের বড়বড় আমলারা বিমানবন্দরে উপস্থিত থাকেন। কিন্তু পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রী কে চীনের পুলিশের একজন সাধারণ কনস্টেবল স্বাগত জানান। জানিয়ে দিই, সৌদি আরবের থেকে ঝটকা খাওয়ার পর পাক বিদেশ মন্ত্রী চীনে ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে গেছেন। সেখানে তিনি চীনের থেকে বড়সড় ঋণের আবেদন করবেন।

এছাড়াও সেখানে তিনি কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে আবারও চীনের সাথে জটলা করে রাষ্ট্রসংঘে প্রস্তাব রাখার প্ল্যান করছেন। জানিয়ে দিই, ইসলামিক দেশের সংগঠনের সাথে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে বৈঠক করতে চেয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু সৌদি আরব তাঁদের পুরনো বন্ধু পাকিস্তানের কথায় কর্ণপাত করেনি। এরপরই পাকিস্তান চটে গিয়ে সৌদি আরবকে হুমকি দিয়ে বসে। তারপর থেকে সৌদি আরও পাকিস্তানে বাকিতে তেল দেওয়া এবং ঋণ দেওয়া বন্ধ করে। এছাড়াও আগের ঋণ শোধ করার জন্য পাকিস্তানের উপর চাপ সৃষ্টি করে সৌদি।

উল্লেখ্য, দুদিন আগে পাকিস্তানের সেনা প্রধান জেনারেল বাজওয়া সৌদি আরবের সাথে সুসম্পর্ক স্থাপন করার জন্য সেখানকার ক্রাউন প্রিন্সের সাথে সাক্ষাৎ করতে রাজধানী রিয়াদে যান। কিন্তু বারবার অনুরোধ করার পরেও সৌদির ক্রাউন প্রিন্স ওনার সাথে সাক্ষাৎ করেন নি। এমনকি সৌদি থেকে বাজওয়াকে একটি সন্মানিয় পদ দেওয়ারও কথা ছিল। সেটাও দেওয়া হয় নি। সৌদিতে পাকিস্তান বেইজ্জত হওয়ার পর, এবার চীনেও অপমান সইতে হল ইমরানের দেশ কে।

Related Articles

Back to top button