টাইমলাইনভারত

অন্য জাতে বিয়ে! মেয়েকে শাস্তি দিতে গুলি করে খুন করল বাবা, দেহ সুটকেসবন্দি করল মা, চাঞ্চল্য মথুরায়

বাংলাহান্ট ডেস্ক : সপ্তাহ খানেক আগে মথুরায় (Mathura) হাইওয়ের পাশে ২২ বছরের এক তরুণীর মৃতদেহ পাওয়া যায়। জানা যায় ওই তরুণীর নাম আয়ুশি চৌধুরীর (Aayushi Chaudhary)। একটি স্যুটকেসে বন্দি অবস্থায় দেহ উদ্ধার হয়। তদ ওই তরুণীর হত্যাকারী আসলে তাঁর বাবা, খুনে সাহায্য করে মা। সোমবার জানাল উত্তরপ্রদেশ পুলিস (Uttar Pradesh Police)। অভিযুক্ত নীতীশ যাদব ও তাঁর স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে কেন মা-বাবার হাতে খুন হতে হল মেয়েকে?

পুলিস সূত্রে জানা যাচ্ছে, দিল্লিতে কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন বিষয়ে পড়াশুনা আয়ুশি। পরিবারের ‘অবাধ্য’ ছিলেন তিনি। কয়েকদিন নীতীশ ও তাঁর স্ত্রী জানতে পারেন, আয়ুশি অন্য জাতের এক তরুণকে বিয়ে করেছে। তাঁর নাম ছত্রপাল। এর পরেই মাথায় আগুন চড়ে যায় বাবা-মার। রাতে দেরি করে বাড়ি ফেরা নিয়েও তরুণীর সঙ্গে মা-বাবার ঝামেলা হত মাঝেমধ্যেই। জেদি আয়ুশিকে কোনও ভাবেই সামলাতে পারছিল না নীতীশ ও তাঁর স্ত্রী। এর পরই মেয়েকে খুনের পরিকল্পনা করেন ওই দম্পতি।

পুলিসের দাবি, নিজের লাইসেন্সড বন্দুক দিয়ে ২২ বছরের মেয়েকে হত্যা করেন বাবা নীতীশ যাদব। আয়ুশির মৃতদেহ স্যুটকেসে ভরে তা নির্জন স্থানে ফেলে দিতে স্বামীকে সাহায্য করেন স্ত্রী। স্যুটকেসবন্দি দেহ উদ্ধারের পর সিসিটিভি ফুটেজ (CCTV Footage), মোবাইল ফোন (Mobile Phone), সোশ্যাল মিডিয়া (Social Media) অ্যাকাউন্ট খতিয়ে দেখেন তদন্তকারী আধিকারিকরা।

এছাড়াও শহরজুড়ে পোস্টার সাঁটানো হয় তরুণীর। এরপরই খোঁজ মেলে আয়ুশির মা ও ভাইয়ের। পরে জানা যায়, তরুণীর বাবা নীতীশ যাদব দক্ষিণ দিল্লির (South Delhi) বাদরাপুরে থাকেন। দেহ শনাক্তকরণের জন্য তাঁকে ডাকা হয়। পুলিসের জেরার পর গোটা বিষয়টিই পরিস্কার হয়ে যায়।

Related Articles