টাইমলাইনভাইরাল

দর্শক এলেই প্রচন্ড খারাপ ভাষায় গালাগালি দিত ৫ টিয়া, শাস্তি দিলো চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ

মুখের ভাষা বড্ড খারাপ, স্থান – কাল – পাত্র বিচার না করে অনর্গল বলেই চলেছে কু-কথা। এমনটাই অভিযোগ ৫ টিয়ার (Parrot) বিরুদ্ধে। এহেন গুরুতর অভিযোগে পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হল চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। খারাপ মুখের ভাষার কারনে ‘শাস্তি’ হল তাদের।

 

এরিক, জেড, এলসি, টাইসন আর বিল্লি নামের এই পাঁচ টিয়ার ঠিকানা লিঙ্কনশায়ার ওয়াইল্ডলাইফ পার্কে। সম্প্রতি দেখা যাচ্ছিল এই ৫ বন্ধু একত্রিত হলেই মুখের ভাষা অত্যন্ত খারাপ হয়ে যায় তাদের। দর্শক তথা শিশুদের সামনেও চলতে থাকে অনর্গল অপভাষার ব্যাবহার। যা উদ্বেগ বাড়িয়েছিল চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের।

এবার তাই খারাপ কথা বলার শাস্তি হিসাবে এই ৫ আফ্রিকান টিয়াকে পাঠানো হচ্ছে ভাষা শিক্ষায়। প্রত্যেককেই আলাদা আলাদা শিক্ষকের কাছে পাঠানো হচ্ছে যাতে তারা একে অপরের সাথে কথা না বলতে পারে। ভাষা শিখে ‘সভ্য’ ও ‘ভদ্র’ হলেই দর্শকদের সামনে উপস্থিত করা হবে তাদের।

স্টিভ নিকোলাস নামের চিড়িয়াখানার এক আধিকারিকের বক্তব্য, শিশুদের সামনে তাদের নোংরা ভাষা যথেষ্ট মাথাব্যথার কারন হয়ে দাঁড়িয়েছিল তাদের। তবে ঠিক কি ভাষা তারা ব্যাবহার করত তা জানা যায় নি। তবে, সুশিক্ষা শেষ করে তারা কবে ফিরবে চিড়িয়াখানায় তারই অপেক্ষা সকলের।

 

Back to top button