টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

‘জন্মেই কেউ রাজনীতিবিদ হয়ে যায় না’, তথাগতর ‘নগরের নটী’র পালটা দিলেন পায়েল

বাংলাহান্ট ডেস্ক: ফের বিতর্ক উসকে সংবাদ শিরোনামে বিজেপি (bjp) নেতা তথাগত রায় (tathagata roy)। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের কাছে হারার সমস্ত দায়টাই তারকা প্রার্থীদের ও দলের শীর্ষ নেতৃত্বদের উপর চাপালেন তিনি। এমনকি শ্রাবন্তী চ‍্যাটার্জী (srabanti chatterjee), পায়েল সরকার (payel sarkar), পার্নো মিত্রদের (parno mitra) ‘নগরের নটী’ বলেও তীব্র কটাক্ষ করেছেন তথাগত রায়।

প্রথমে চুপ থাকলেও সোশ‍্যাল মিডিয়ায় এবার মুখ খুললেন পায়েল সরকার। মার্জিত অথচ দৃঢ় ভাবে বর্ষীয়ান রাজনীতিককে যোগ‍্য জবাব দিয়েছেন তিনি। তথাগত রায়কে ট‍্যাগ করে পরপর কয়েকটি টুইট করেছেন অভিনেত্রী। স্পষ্ট কথায় বর্ষীয়ান নেতাকে বলেছেন, জন্মেই কেউ রাজনীতিবিদ হয়ে যায় না।


পায়েল লিখেছেন, ‘আমি জানি আমি রাজনীতির সঙ্গে আগে থেকে যুক্ত ছিলাম না কিন্তু জন্মেই কেউ রাজনীতিবিদ হয়ে যায় না, আপনিও হননি। এটা একটা প‍্যাশন। বিজেপি আমার উপর ভরসা করেছে এবং বেহালা পূর্বের মানুষদের জন‍্য যতটা সম্ভব আমি করেছি।’

অভিনেত্রী আরো লেখেন, ‘ফল আমাদের অনুকূলে হয়নি ঠিকই কিন্তু নরেন্দ্র মোদীজি, কৈলাস বিজয়বর্গীয়জি, শুভেন্দু অধিকারীদা, অমিত শাহজি ও দিলীপ ঘোষ দার নেতৃত্বে আমরা কঠিন পরিশ্রম করেছি। এটা আপনার বোকা বোকা মনে হতে পারে কিন্তু আপনার ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে করা এই টুইটগুলি ক্লাসটা বুঝিয়ে দেয়।’

এখানেই থামেননি পায়েল। তিনি আরো লেখেন, ‘আমি বিজয়ী দলকে শুভেচ্ছা জানিয়েছি ও এটাও জানিয়েছি যে সফরটা আমি শুরু করেছি সেটা এগিয়ে নিয়ে যাব। এটাই আমি করি ও আমরা অভিনেতারা এতটাই প‍্যাশনেট। আপনি প্রবীণ তাই আপনার সাহায‍্য চাইছি।’

এবারের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলাকে কার্যত পাখির চোখ করে এগিয়েছে বিজেপি। বাংলা জয়ের উদ্দেশে রীতিমতো কঠোর পরিশ্রম করেছে গেরুয়া শিবির। নিয়ম করে রাজ‍্যে এসে সভা করেছেন বিজেপির তাবড় নেতা নেত্রী থেকে শুরু করে প্রধানমন্ত্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীরাও। কিন্তু কার্যক্ষেত্রে লাভ কিছুই হয়নি। এই নিয়ে তৃতীয় বার নিরঙ্কুশ সংখ‍্যা গরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গঠন করছেন মমতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়।

এই হারের জন‍্য তারকা প্রার্থীদের উপর বেনজির আক্রমণ শানিয়েছেন তথাগত রায়। টুইটে তথাগত রায় লিখেছেন, ‘পায়েল শ্রাবন্তী পার্নো ইত্যাদি ‘নগরীর নটীরা’ নির্বাচনের টাকা নিয়ে কেলি করে বেড়িয়েছেন আর মদন মিত্রর সঙ্গে নৌকাবিলাসে গিয়ে সেলফি তুলেছেন (এবং হেরে ভূত হয়েছেন) তাঁদেরকে টিকিট দিয়েছিল কে ? কেনই বা দিয়েছিল? দিলীপ-কৈলাশ-শিবপ্রকাশ-অরবিন্দ প্রভুরা একটু আলোকপাত করবেন কি ?’

এই টুইটটি নিয়ে ইতিমধ‍্যেই তোলপাড় হচ্ছে রাজ‍্য রাজনীতি। মহিলাদের সম্পর্কে এমন বিশেষন যথেষ্ট কুরুচিকর বলে মন্তব‍্য করেছেন অনেকেই। নির্বাচনের ঠিক আগে আগেই বেশ কয়েকজন তারকা প্রার্থী যোগ দিয়েছিলেন বিজেপিতে। তাঁদের মধ‍্যে বেশিরভাগই হারের মুখ দেখেছেন। রাজনীতিতে অজ্ঞ এই তারকাদের টিকিট দেওয়ার অর্থ কি? দলীয় নেতৃত্বদের কাছে প্রশ্ন তুলেছেন তথাগত রায়।

Related Articles

Back to top button