টাইমলাইনবিনোদন

২০০র ও বেশি মহিলার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ছিল অনুরাগের, ফের বিষ্ফোরন পায়েলের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: অভিনেত্রী পায়েল ঘোষ (payel ghosh) তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তোলার পর থেকেই বেশ বিপদে পড়েছেন পরিচালক অনুরাগ কাশ‍্যপ (anurag kashyap)। এই নিয়েই এখন হুলুস্থূল চলছে বলিউডে। পায়েলের এই অভিযোগে তাঁকে সমর্থন করেছেন কঙ্গনা রানাওয়াতও। তবে এই অভিযোগের জোর গলায় প্রতিবাদ জানিয়েছেন অনুরাগ।

পায়েল জানান, অনুরাগ নিজেই বলেছিলেন যে তাঁর ২০০র বেশি মহিলাদের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল। বেশ গর্বের সঙ্গেই নাকি এই কথা বলেন তিনি। পায়েলের কথায়, “এমন নয় যে উনি এই কথা গুলো লুকিয়ে রাখতে চাইছিলেন। বরং আমাকে ওনার কথা বিশ্বাস করানোর চেষ্টা করছিলেন উনি।”


পায়েল জানান যে প্রথমে যখন তিনি অনুরাগ কাশ‍্যপের বাড়ি যান তখন তাঁর সবকিছু স্বাভাবিকই লেগেছিল। একসঙ্গে বসে খাবারও খেয়েছিলেন তাঁরা। দ্বিতীয় দিন বাড়িতে ডেকে অন‍্য একটি ঘরে পায়েলকে নিয়ে যান পরিচালক।

অভিনেত্রী বলেন, “সেখানে অনেক ভিডিও ক‍্যাসেট রাখা ছিল। একটি ফিল্ম চালিয়ে অদ্ভূত আচরণ শুরু করেন তিনি। আমার অস্বস্তি লাগতে আমি সেখান থেকে উঠে চলে যাই। তখন উনি বলেন এর আগে আমি যাদেরই লঞ্চ করেছি তারা সবাই খুব কুল ছিলেন। তখনই রিচা চাড্ডা ও হুমা কুরেশির নাম করেন তিনি।”

অনুরাগ অবশ‍্য সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। এমন কোনো কাজই তিনি করেন না এবং সমর্থন করেন না বলে জানিয়েছেন পরিচালক। তিনি আরও বলেন, তাঁকে চুপ করানোর জন‍্য যে এমনটা করা হবে তা তিনি জানতেন।


অনুরাগের সমর্থনে সরব হয়েছেন তাঁর প্রথম স্ত্রী আরতি বাজাজ। এটাকে অত‍্যন্ত ‘সস্তা স্টান্ট’ বলে অভিহিত করে তিনি বলেন অভিযোগটা শুনে তিনি হেসে ফেলেছিলেন।

সোশ‍্যাল মিডিয়ায় আরতি লেখেন, ‘আমি প্রথম স্ত্রী। অনুরাগ কাশ‍্যপ তুমি একজন রকস্টার। নারীদের ক্ষমতার জন‍্য যেভাবে কাজ করছো করতে থাকো ও তাদের জন‍্য এক সুরক্ষিত পরিবেশ গড়ে তোলো। আমাদের মেয়েকে এই পরিবেশে দেখতে চাই আমি। এই জগতে সততার আর কোনো মূল‍্য নেই, যারা প্রতিবাদ করে তাদের কেউ সমর্থন করে না। অন‍্যকে ঘৃণা করতে যে পরিমাণ শক্তি ব‍্যয় করা হয় সবাই যদি সেটা কাজে লাগায় তাহলে এই পৃথিবী আরও সুন্দর হয়ে উঠত।’

তিনি আরও লেখেন, ‘ এখনো পর্যন্ত আমার দেখা সবথেকে সস্তা স্টান্ট। প্রথমে আমি খুবই রেগে গিয়েছিলাম তারপর হেসে ফেলেছি কারন এর থেকে বড় মিথ‍্যে আর কিছু হয় না। আমার খারাপ লাগছে যে তোমাকে এসব সহ‍্য করতে হচ্ছে। এটাই ওদের সীমা। তুমি তোমার মাথা উঁচু রাখো ও প্রতিবাদ করতে থাকো। আমরা তোমাকে ভালবাসি।’

Back to top button