fbpx
টাইমলাইনভারত

করোনার কারনে সোনা বিক্রির হুড়োহুড়ি এই দেশে

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ করোনার কারনে ইতিমধ্যেই বেশ কয়েক দফায় দাম বেড়েছে সোনার(gold)। যার জেরে ইতিমধ্যেই সঞ্চিত সোনা বিক্রি করে মুনাফা লাভের আশায় ঝাপিয়ে পড়েছে একদল মানুষ। থাইল্যান্ডের চিনাটাউন, ইয়াভার্ট, ব্যাংককের সোনার দামে ২০ শতাংশ বৃদ্ধির সুযোগ নিতে তাদের ব্রেসলেট, নেকলেস এবং অন্যান্য অলঙ্কার বিক্রি করতে আসছেন বলে জানা যাচ্ছে। এপ্রিলের জন্য এনডিএর সোনার দাম আন্তর্জাতিক বাজারে লাভের সন্ধানের জন্য ২০ শে মার্চ, প্রতি 10 গ্রামে  40,000 টাকার রেকর্ডের উপরে উঠেছিল। যার জেরেই সোনা বিক্রি এত বেড়ে গিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, বিশ্ব আর্থিক মন্দা নিয়ে উদ্বেগ এবং করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কগুলির একাধিক আর্থিক প্যাকেজের কারণে আন্তর্জাতিক স্তরে সোনার চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে। যার ফলেই দামের কোনও উল্লেখযোগ্য পতন ঘটেনি। ট্রেন্ড বজায় থাকলে বাড়বে সোনার দামও। এই সপ্তাহে  রয়টার্সের দ্বারা সমীক্ষিত অর্থনীতিবিদদের মতে, ভাইরাস থেকে অর্থনৈতিক ক্রিয়াকলাপের প্রভাব আরও ব্যাপক আকার ধারণ করায় বিশ্বব্যাপী অর্থনীতি ইতিমধ্যে মন্দায় রয়েছে।

করোনা ভাইরাস। চিনের সঙ্গে সঙ্গে সারা বিশ্বেই ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাসের (Cororna Virus) আতঙ্ক। এমনকি ভারতেও এই মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন মানুষ। ভারতেও থাবা বসিয়েছে করোনা। এর জেরেই বিশ্ব বাজারে তৈরী হয়েছে অর্থনৈতিক মন্দা। যার সাথে পাল্লা দিয়ে চলছে সোনার দামের উত্থান পতন

স্বর্ণ ব্যবসায়ি সহ স্বর্ণ শিল্পীদের অনেকেই লোকসানের মুখে পড়েছে। অনেক স্বর্ণশিল্পীই সোনার কাজ ছেড়ে অন্য কাজের দিনে পাড়ি দিয়ে জীবন ধারনের জন্য।একই সাথে সোনার দাম বেড়ে যাওয়ার কারনে মাথায় হাত মধ্যবিত্তেরও। সামনেই বিয়ের মরশুম। আর ভারতীয় পরিবারে সোনা ছাড়া বিয়ে কল্পনা করাই যায় না।

Back to top button
Close
Close