টাইমলাইনটাকা পয়সাআন্তর্জাতিক

রান্নার তেল ৪০০ টাকা লিটার, পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়ল ১৯ টাকা! চরম হাহাকার পাকিস্তানে

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানে (Pakistan) মূল্যবৃদ্ধি চরমে উঠেছে। ইমরান খানের (Imran Khan) দেশে মুদ্রাস্ফীতি ১২.৬৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এর সরাসরি প্রভাব সাধারণ মানুষ, খাদ্য সামগ্রী আর পেট্রোল-ডিজেলের (Petrol, Diesel)  দামে পড়েছে। শনিবার পাকিস্তানের ইমরান খান সরকার পেট্রোল ডিজেলের দাম এক ধাক্কায় ১০ টাকা বাড়িয়ে দিয়েছে। আর এই কারণে সাধারণ নাগরিকরা বড়সড় ঝটকা খেয়েছে।

লাগাতার মূল্যবৃদ্ধির কারণে পাকিস্তানে চরম সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। পাকিস্তানে পেট্রোলের দাম ১৩৭ টাকা ৭৯ পয়সা আর স্পিড ডিজেলের দাম ১৩৪ টাকা ৪৮ পয়সা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এক দিন আগে সরকার বিদ্যুতের দাম ১ টাকা ৩৯ পয়সা বাড়িয়েছে। ইমরান সরকার বর্ধিত মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সাফাই দিয়ে বলেছেন, পাকিস্তান সরকার বর্তমানে আর্থিক চাপে রয়েছে, তবুও তাঁরা জনতাকে স্বস্তি দেওয়ার সবরকম প্রয়াস করে চলেছে।

Petrol

পাকিস্তানের অর্থ মন্ত্রক পেট্রোল ডিজেলের দাম বাড়িয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলেছে, ‘এই সময় অক্টোবর ২০১৮-র পর তেলের দাম সবথেকে বেশি বেড়েছে। তেল প্রায় ৮৫ ডলার প্রতি ব্যারেল বিক্রি হচ্ছে।”

পাকিস্তানে পেট্রোল-ডিজেলের দাম নিয়ে বিরোধী শিবির ইমরান সরকারকে আক্রমণ করেছে। তাঁরা সরকারের কাছে বর্ধিত মূল্যর ঘোষণা ফেরত নেওয়ারও দাবি করেছে। পিপিপি নেতা মিঞা রাজা রব্বানি বলেছেন, সেপ্টেম্বর মাসেই পেট্রোলের দাম ৯ টাকা বাড়ানো হয়েছিল। উনি বলেন, সমস্ত খাদ্য সামগ্রীর দাম আকাশ ছুঁয়েছে। রব্বানি বলেন, পেট্রোল-ডিজেলের দাম এত বেড়েছে যে, সেগুলো এখন গরিবদের ধরা ছোঁয়ার বাইরে। পাশাপাশি পাকিস্তানে ভোজ্য তেলের দাম ৪০০ টাকা প্রতি লিটার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Related Articles

Back to top button