ছবিটাইমলাইনবিনোদনভাইরালভারত

কেরলে মেডিকেল কলেজে মেয়েদের জিন্স ব্যান হওয়ায় লুঙ্গি পড়ল মেয়েরা! জানুন ভাইরাল ছবির আসল সত্য

Bangla Hunt Desk: বর্তমান সময়ে স্যোশাল মিডিয়ায় বহুল পরিমাণে একটি ছবি ভাইরাল (Viral photo) হয়। যেখানে দেখা যায় বেশ কিছু মেয়ে লুঙ্গি পরিহিত অবস্থায় রয়েছে। তবে এই ছবির সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে, কেরলের মেডিকেল কলেজে মেয়েদের জিন্স পড়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করার, প্রতিবাদে মেয়েরা লুঙ্গি পড়ে কলেজ যাচ্ছে।

এমনকি স্যোশাল মিডিয়ায় পোস্ট হওয়া এই ভাইরাল ছবির ট্যুইট পোস্ট রিট্যুইট করেন পরিচালক অনুভব সিনহা। তিনিও এই বিষয়ে একই ট্যুইট করেন।

জানুন এই ঘটনার আসল সত্য
কেরলের মেডিকেল কলেজের নাম নিয়ে প্রকাশিত হওয়া এই ধরনের পোস্টের সত্যতা যাচাই করতে গিয়ে অন্য গল্প প্রকাশ্যে আসে। কেরলের মেডিকেল কলেজে মেয়েদের পোষাকের মধ্যে জিন্স নিষিদ্ধ করা হয়েছিল প্রায় ৪ বছর আগে ২০১৬ সালে। এদিকে আবার বর্তমান সময়ে স্যোশাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়ানো মেয়েদের লুঙ্গি পরিহিত ছবিটিও প্রায় ৪ বছর পুরোন।

দুটি ঘটনা প্রায় একই সময়ের হলেও, মেডিকেল কলেজের মেয়েদের জিন্স নিষিদ্ধ হওয়ার সঙ্গে এই ছবির কোন মিল নেই। সমস্ত তথ্যই এক সংবাদ মাধ্যম গুগল সার্চ করে অনুসন্ধান করে জানিয়েছে। ইন্টারনেট ব্যবহার করে ওই সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, তেলুগু পিপলস ওয়েবসাইটে ২০১৫ সালের একটি প্রতিবেদন থেকে ভাইরাল হওয়া লুঙ্গি পরিহিত মেয়েদের ছবি পাওয়া গেছে।

লুঙ্গি পরিহিত মেয়েদের ছবি ভাইরাল
আসল সত্য হল, ভাইরাল ছবিতে (Viral photo) যে মেয়েদেরকে লুঙ্গি পরিহিত অবস্থায় দেখা যায়, তারা সকলেই তেলেগু অভিনেতা মহেশ বাবুর অনুরাগী। ২০১৫ সালে ‘Srimanthudu’ নামে অভিনেতা মহেশ বাবুর একটি সিনামে মুক্তি পায়। ওই সিনেমায় মহেশ বাবু চরিত্রের প্রয়োজনে এই ধরণের পোশাক পড়েছিলেন। সেই কারণে তাঁর অনুগামী মহিলা ভক্তরা সেই সময় তাঁকে অনুকরণ করে একই রকমের পোশাক পড়ে ছবি তুলেছিলেন। এই ঘটনার সঙ্গে কেরল মেডিকেল কলেজের কোন যোগাযোগ নেই।

Back to top button