টাইমলাইনভারতরাজনীতি

ত্রিপুরায় ভেঙে খানখান কংগ্রেস, এবার রাজ্য সভাপতি যোগ দিতে চলেছেন তৃণমূলে

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ সুদীপ রায়বর্মণ দল ছাড়ার পর থেকেই, ত্রিপুরায় (tripura) ক্রমশ শক্তি কমতে থাকে কংগ্রেসের (congress)। এবার দল এবং পদ দুইই ছাড়লেন ত্রিপুরার প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির কার্যকরী সভাপতি পীযুষকান্তি বিশ্বাস (Pijush Kanti Biswas)। এবার তাঁর তৃণমূলে যোগ দেওয়ার জল্পনা তুঙ্গে।

কিছুদিন আগেই ত্রিপুরায় তৃণমূল বাহিনীর উপর আক্রমণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছিলেন পীযুষকান্তি বিশ্বাস। ‘বিজেপির আক্রমণকে’ বর্বর বলে ব্যাখ্যা করেছিলেন তিনি। পাশাপাশি হুট করে যে কাউকে দলে নেওয়ার থেকেও বিরত থাকার সতর্কবার্তা দিয়েছিল তৃণমূলকে। এবার কংগ্রেস ছাড়ায়, তাঁরই সবুজ শিবিরে নাম দেওয়ার জল্পনা চলছে রাজনৈতিক মহলে।

সুদীপ রায়বর্মণ কংগ্রেস ছাড়ার পর থেকেই, ত্রিপুরায় কিছুটা শক্তি হারিয়েছে এই পুরনো দল। তবে এরপর মাণিক্য দেববর্মা এসে হাল ধরলেও, কোন উন্নতি সম্ভব হয়নি। তবে এবার পীযুষকান্তি বিশ্বাস দল ছাড়ায়, মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের গড়ে আরও দুর্বল হয়ে পড়ল কংগ্রেস।

শনিবার এক ট্যুইট বার্তায় নিজের পদত্যাগের ছাড়ার কথা জানান পীযুষকান্তি বিশ্বাস। তিনি লেখেন, ‘দলের সকল সহকর্মীকে আমাকে এতদিন ধরে সমর্থন করার জন্য ধন্যবাদ জানাই। আমি দলের কার্যকরী সভাপতি পদত্যাগ করছি এবং রাজনীতি থেকেও অবসর নিচ্ছি। মাননীয়া সোনিয়া গান্ধী জির প্রতি আমার আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাই’।

এবিষয়ে পীযুষকান্তি বিশ্বাসকে ট্যুইটারে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন শিলচরের প্রাক্তন কংগ্রেস সাংসদ সুস্মিতা দেব (Susmita Dev), বর্তমানে তিনি তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। তিনি লেখেন, ‘ভবিষ্যতের জন্য অনেক শুভেচ্ছা রইল। কঠিন সময়েও আপনি অনেক কাজ করেছেন’।

Related Articles

Back to top button