টাইমলাইনরাজনীতিআন্তর্জাতিক

জার্মানিতেও মোদী জ্বর, মিউনিখে পোঁছতেই ব্যাপক অভ্যর্থনা পেলেন প্রধানমন্ত্রী! উঠল বন্দেমাতরম স্লোগান

বাংলাহান্ট ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২৬ জুন থেকে অনুষ্ঠিত G7 শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে রবিবার জার্মানির মিউনিখে পৌঁছেছেন। বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পর মোদিকে ঘিরে প্রবাসী ভারতীয়দের উন্মাদনা ছিল চোখে পড়ার মতো। তার আগমনের সাথে সাথে চারিদিক থেকে ধ্বনিত হতে থাকে বন্দেমাতরম, ভারত মাতা কি জয়। নিজের স্বভাব সিদ্ধ ভঙ্গিতেই প্রবাসী ভারতীয়দের উদ্দেশ্যে হাত নাড়েন প্রধানমন্ত্রী মোদী। যদিও অতীতে যতবার প্রধানমন্ত্রী বিদেশের মাটিতে পা রেখেছেন ততবারই তিনি তার বাগ্মিতার জোরে প্রবাসীদের মন জয় করে নিয়েছেন।  এবারেও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

জানা গিয়েছে, দুই দিনের শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিয়ে মোদি G7 এবং অন্যান্য অতিথিদের সাথে বৈঠক করবেন। দেশ এবং সমসাময়িক বিষয়ে মত বিনিময় করবেন তিনি। দেশ ছাড়ার সময়ে তিনি তার বিবৃতিতে জানান, তিনি জার্মানির চ্যান্সেলরের আমন্ত্রণে জার্মানির শ্লোস এলমাউ সফর করবেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন,  “আমি G7 দেশ, G7 অংশীদার দেশ এবং অতিথি আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলির সাথে পরিবেশ, শক্তি, জলবায়ু, খাদ্য নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য, সন্ত্রাসবিরোধী, লিঙ্গ সমতা এবং গণতন্ত্রের মত বিষয়গত বিষয়ে মতামত বিনিময় করব৷ শীর্ষ সম্মেলনের ফাঁকে কিছু অংশগ্রহণকারী G7 এবং অতিথি দেশের নেতাদের সাথে সাক্ষাতের জন্য উন্মুখ। ”

G7 সম্মেলনে যোগদানের পর, প্রধানমন্ত্রী ২৮ শেষ জুন, সংযুক্ত আরব আমিরাত (UAE) সফর করবেন।সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এবং আবুধাবির শাসক শেখ খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের মৃত্যুতে তার ব্যক্তিগত শোক জানাবেন মোদী। সূত্রের খবর,শেখ মহম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানকে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির নতুন রাষ্ট্রপতি এবং আবুধাবির শাসক হিসাবে নির্বাচিত হওয়ার জন্য শুভেচ্ছা জানাবেন মোদী।

২৮ সে জুন রাতে আরব আমিরাত থেকে বিমান ধরবেন তিনি। এক বিবৃতিতে মোদী জানিয়েছেন তিনি প্রবাসী ভারতীয়দের সাথে দেখা করার জন্য খুবই উৎসাহিত।এনারা দেশে অর্থনীতিতে বিশেষ অবদানের সাথে সাথে ইউরোপের দেশ গুলির সাথে ভারতের সম্পর্ক আরো বন্ধুত্বপূর্ণ করছেন।

Related Articles

Back to top button