টাইমলাইনভারত

‘হর ঘর নল যোজনা’র সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী, উপকৃত হবেন ৪১ লক্ষ মানুষ

বাংলা হান্ট ডেস্ক: প্রত্যেক গ্রামবাসী যাতে সহজে স্বচ্ছ পানীয় জল পান, তা সুনিশ্চিত করতে উত্তরপ্রদেশে ‘হর ঘর নল যোজনা’র সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra modi)। রবিবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উত্তরপ্রদেশের বিন্ধ্য এলাকার সোনভদ্রা ও মির্জাপুর এলাকার জন্য এই প্রকল্পের সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ অবশ্য সোনভদ্রায় উপস্থিত ছিলেন। এই প্রকল্পের জন্য মোট ৫৫৫৫.৩৮ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এর ফলে ওই দুই জেলার প্রায় ৪১ লক্ষ গ্রামবাসী উপকৃত হবেন।

প্রকল্পের উদ্বোধন করার সময় মোদী বলেন, ‘এই এলাকাগুলি প্রাকৃতিক উপাদানে ভরপুর। কিন্তু স্বাধীনতার পর থেকে উপেক্ষিতই রয়ে গিয়েছে। এলাকায় বেশ কিছু নদী থাকা সত্ত্বেও এখানে প্রতিবার খরা হয়। পানীয় জলের এই সমস্যার কথা বর্তমান সরকার অত্যন্ত গভীরভাবে পর্যালোচনা করেছে এবং তা দূর করতেই আজ “হর ঘর নল যোজনা”র সূচনা করা হল।’ পাশাপাশি, তিনি বলেন এলাকার স্থানীয় গ্রামবাসী ও আদিবাসীদের আত্মনির্ভর করে তোলার জন্য বিজেপি সরকার সর্বদা সচেষ্ট।

মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানান, স্বাধীনতার পর থেকে মাত্র ৩৯৮টি গ্রামে পাইপ লাইনের মাধ্যমে জল পরিষেবা পৌঁছেছিল। কিন্তু এবার থেকে জল জীবন মিশনের অন্তর্গত ‘হর ঘর জল যোজনা’র মাধ্যমে ২৯৯৫টি গ্রামে পাইপ লাইনের মাধ্যমে পানীয় জল পৌঁছে যাবে। এর ফলে মির্জাপুরের ২১ লক্ষ ৮৭ হাজার ৯৮০ জন গ্রামবাসী ও সোনভদ্রার ১৯ লক্ষ ৫৩ হাজার ৪৫৮ জন গ্রামবাসী উপকৃত হবেন। এবার থেকে নদী ও খাল থেকে জল পরিশোধন করে গ্রামবাসীদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে।

জল শক্তি মন্ত্রকের ইঞ্জিনিয়ারদের দাবি, প্রায় ৪১ লক্ষ গ্রামবাসী এর ফলে পরিস্রুত জল পাবেন। আগামী দুই বছরের মধ্যে জল বণ্টনের কাজ সম্পন্ন হয়ে যাবে। এছাড়া অনুষ্ঠানে পণ্ডিত দীনদয়াল উপাধ্যায় অন্তোদ্যয় যোজনার অধীনে যেসব মহিলারা স্কুলের ড্রেস বানান, তাদের হাতেও চেক তুলে দেন যোগী আদিত্যনাথ। পাশাপাশি, মা বিন্ধ্যবাসিনী মন্দিরেও পুজো দেন তিনি।

Back to top button