ভারতটাইমলাইন

জন্মদিন ছিল পাঁচজনের, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাদে সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সমেত বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পাঁচজন নেতার জন্মদিন ছিল ৫ জানুয়ারি। ওই দিনে এই সমস্ত রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের অন্য নেতারা জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা দেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ওই দিন কাউকে ফোন করে শুভেচ্ছা জানান, আবার কাউকে চিঠি পাঠিয়ে শুভেচ্ছা জানান। কিন্তু তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কোনও ভাবেই জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান নি।

৫ জানুয়ারি তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কংগ্রেসের বরিষ্ঠ নেতা আনন্দ শর্মা, ডিএমকে নেতা কনিমোই, বিজেপি নেতা মুরলী মনোহর জোশি আর উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কল্যাণ সিংয়ের জন্মদিন ছিল। ওইদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মুরলী মনোহর জোশিকে ট্যুইটারে শুভেচ্ছা জানান। আর কল্যাণ সিংকে ফোন করে শুভেচ্ছা জানান। প্রধানমন্ত্রী মোদী কংগ্রেস নেতা আনন্দ শর্মাকে চিঠির মাধ্যমে শুভেচ্ছা পাঠান। কিন্তু তিনি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে না ট্যুইটারে শুভেচ্ছা পাঠান, আর না ফোন অথবা চিঠিতে শুভেচ্ছা জানান।

১৫ বছর বয়সে রাজনীতির ময়দানে পা রাখা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য ৫ জানুয়ারি ১৯৫৫ সালে হয়েছিল। উনি নিজের ৬৬ বছর পূরণ করলেন। ওনাকে ৫ তারিখ অনেক নেতা-নেত্রীরা জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান। দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল। ডিএমকে নেতা এমকে স্ট্যালিন, এনসিপি নেত্রী সুপ্রিয়া সুলে, ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব সমেত অনেকেই ওনাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান।

জানিয়ে রাখি, এবছরই রাজ্যে বিধানসভার নির্বাচন হতে চলেছে। আর বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি এবং তৃণমূলের মধ্যে রাজনৈতিক উত্তাপ বেড়েই চলেছে। বিজেপি এবার রাজ্যে ২০০ আসন জেতার লক্ষ্যমাত্রা রেখেছে।

Back to top button