টাইমলাইনভারত

গোটা বিশ্বের কোনায় কোনায় করোনার ভ্যাকসিন পৌঁছে দেবে ভারত! বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) শনিবার দেশে করোনার পরিস্থিতি আর ভ্যাকসিনের প্রস্তুতির সমীক্ষা করেন। এই বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী ডঃ হর্ষবর্ধন, প্রধানমন্ত্রীর প্রধান সচিব, নীতি আয়োগের সদস্য আর ভারত সরকারের অন্যান্য বিভাগের আধিকারিকেরা উপস্থিত ছিলেন। এই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, আমাদের লক্ষ্য শুধু প্রতিবেশি দেশ গুলোতে ভ্যাকসিন দেওয়া না। আমাদের লক্ষ্য বিশ্বের কোনায় কোনায় ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়া। উনি বলেন, ভ্যাকসিন বিতরণ প্রণালী আরও মজবুত করার জন্য আমদের গোটা বিশ্বের আইটি প্ল্যাটফর্মে জোর দিতে হবে।

জানিয়ে দিই, ভারতে (India) করোনা ভাইরাসে (Coronavirus) প্রকোপ হ্রাস পাচ্ছে। দেশে কোভিড-১৯ সংক্রমণের নতুন মামলায় বিগত কয়েকদিন ধরে পতন দেখা দিয়েছে। আরেকদিকে করোনা সংক্রমিত ব্যাক্তিদের ঠিক ঠিক হওয়ার দরও দ্রুত গতিতে বাড়ছে। আর এই কারণে দেশে করোনা সংক্রমণের সক্রিয় মামলা ৮ লক্ষের কম হয়ে গিয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য এবং পরিবার কল্যাণ মন্ত্রালয় অনুযায়ী, গত দেড় মাসে করোনার মামলা যেমন দ্রুত গতিতে বেড়ে চলছিল, তেমনই সুস্থ হওয়ার মামলাও দ্রুত গতিতে বাড়ছে। ভারতে এখনো পর্যন্ত ৬৪,৫৩,৭৭৯ জন করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক দ্বারা শুক্রবার জারি করা পরিসংখ্যান অনুজায়ু, দেশে করোনার ৭৩ লক্ষের বেশি মামলা সামনে এসেছে, আর এরমধ্যে ৬৪ লক্ষের বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এখনো পর্যন্ত দেশে ১ লক্ষ ১২ হাজার ১৬১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন।

অক্টোবরের ১৫ তারিখ পর্যন্ত দেশে করোনার সংক্রমণের নতুন মামলায় ১৮ শতাংশ পতন হয়েছে। আর করোনায় মৃত্যুর মামলায় ১৯ শতাংশ পতন হয়েছে। সেপ্টেম্বর মাসের শেষ তথা অক্টোবর মাসে শুরুতে করোনায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা এক লক্ষ ছুঁইছুঁই ছিল। কিন্তু এখন নতুন মামলা ৬০ থেকে ৭০ হাজারে এসে।

আর এরমধ্যে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী হর্ষবর্ধন দেশবাসীকে সতর্ক থাকার আবেদন জানিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন যে, শীত আর উৎসবের মরশুমের কারণে আগামী আড়াই মাস করোনার বিরুদ্ধে লড়াই খুব গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। উনি শুক্রবার বলেন, ভারতে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করার কাজ চলছে। উনি বলেন, শীত আর উৎসবের মরশুমে সবাইকে দায়িত্ব নিয়ে করোনার জন্য তৈরি করা সরকারের গাইডলাইন পালন করতে হবে।

Back to top button