টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

চাকরি দেওয়ার নাম করে টাকা খাওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার অনুব্রত মণ্ডলের ভাই

বাংলা হান্ট ডেস্ক: প্রতিনিয়ত রাজনৈতিকদের একের পর এক প্রতারণার খবর উঠে এসেছে আমাদের সামনে এবার ফের একবার প্রতারণার অভিযোগ উঠল অনুব্রত মণ্ডলের ভাইয়ের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি খবর পাওয়া গেছে যে চাকরি দেওয়ার নাম করে বেশ কিছু পরিমাণ টাকা আত্মসাৎ করেছেন তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের ভাই সুমিত রঞ্জন মন্ডল। গতকাল বোলপুরের চৌরাস্তা থেকে শান্তিনিকেতন থানার পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। আজ শনিবার তাকে তোলা হয় সিউড়ি আদালতে, সেখানেই বিচারক তাঁকে পাঁচ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন। যদিও এই প্রতারণার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশের পক্ষ থেকে ১৪ দিনের হেফাজত চাওয়া হয়েছিল।

আইনজীবী সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, গত চলতি বছরের ২৯শে জুলাই তারিখে মল্লারপুরে এক ব্যক্তি অভিযোগ দায়ের করেন। ওই ব্যক্তি তার অভিযোগপত্রে দাবি করে জানান চাকরি দেওয়ার নাম করে তার টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে। তার এই অভিযোগের ওপর ভিত্তি করেই সুমিত মন্ডল কে গ্রেফতার করে পুলিশ। আজ আদালত তাকে পাঁচ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেয়।

অন্যদিকে আবার সুমিত মন্ডলের আইনজীবীর দাবি জানিয়ে বলেছেন, “ওই অভিযোগকারী ব্যক্তির অভিযোগপত্রে সুমিত মন্ডলের কোনরকম নাম নেই, তা সত্ত্বেও পুলিশ মিথ্যা মামলায় সুমিতকে ফাঁসিয়ে গ্রেপ্তার করেছে। সুমিত মন্ডল কে প্রথমে শান্তিনিকেতন থানার পুলিশ গ্রেফতার করে, তারপর সেখান থেকে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় বোলপুর থানায় এবং তারপরে নানুর থানায়। এখানেই শেষ নয় এরপর আবার, সাঁইথিয়া থানায় নিয়ে আসা হয় তাকে। সেখানেই মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয় সুমিত কে।’

গ্রেপ্তারের বিষয়ে বিজেপির জেলা সভাপতি শ্যামাপদ মন্ডল জানান, “সম্পূর্ণ মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে তাকে গতকাল গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আর কিভাবে গাড়ি থেকে নামিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাও সবাই দেখেছে। কেবলমাত্র বিজেপি করার অপরাধে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।”

Leave a Reply

Close
Close